SylhetNews24.com

আল্লামা কাসেমীর জানাজা জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে 

অনলাইন ডেস্ক

সিলেট নিউজ ২৪

প্রকাশিত : ১২:২০ এএম, ১৪ ডিসেম্বর ২০২০ সোমবার

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন) 

রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার দুপুর ১টায় ইন্তেকাল করেন তিনি। তার বয়স হয়েছিল ৭৪ বছর।নূর হোসাইন কাসেমীর ব্যক্তিগত সহকারী আমীর হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম সংবাদবিজ্ঞপ্তিতে জানায়, সোমবার সকাল ৯টায় জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে তার নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। স্বাস্থবিধি মেনে দলের নেতাকর্মীদের জানাজায় অংশ নেওয়ার আহবান জানানো হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘শারীরিক অবস্থার হঠাৎ অবনতি হওয়ায় গত ১ ডিসেম্বর হুজুরকে হাসপাতালের ভর্তি করা হয়েছিল।’

অ্যাজমা ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব নূর হোসাইন কাসেমী। তিনি বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় ঐক্যজোটের শরিক দল জমিয়তে ওলামায়ে ইসলামের মহাসচিব ছিলেন।

বারিধারায় তার প্রতিষ্ঠিত জামিয়া মাদানিয়া মাদ্রাসার পাশে নূর হোসাইন কাসেমীকে দাফন করা হবে বলে জানিয়েছেন আমীর হোসেন।

 

আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমীর মৃত্যুতে বিএনপির শোক
২০ দলীয় জোটের শরিক দল জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব ও হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমীর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছে বিএনপি। তাঁর মতো একজন খ্যাতিমান আলেমের  মৃত্যু বর্তমান সংকটকালে অপূরণীয় ক্ষতি বলে আখ্যায়িত করেছে দলটি।

রোববার শোকবাণীতে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘অত্যন্ত উদার, সজ্জন ও বিনয়ী স্বভাবের মানুষ ছিলেন আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী। তিনি ছিলেন একজন দক্ষ সংগঠক, অত্যন্ত নিষ্ঠার সঙ্গে নিজ সংগঠনের দায়িত্ব পালন করেছেন।’

ইসলামি চিন্তাবিদ হিসেবে এ দেশের মানুষকে নূর হোসাইন কাসেমী গভীরভাবে প্রভাবিত করেছেন উল্লেখ করে বিএনপির মহাসচিব আরো বলেন, ‘ইসলাম ধর্মের একজন সুপণ্ডিত হিসেবেই তিনি ছিলেন বাংলাদেশে সর্বজনশ্রদ্ধেয়। বর্তমান স্বৈরাচারবিরোধী গণতান্ত্রিক আন্দোলনে এই সাহসী নেতা শত নির্যাতন সহ্য করেছেন এবং তাঁর সংগ্রামী ভূমিকা গণতন্ত্রকামী মানুষকে অনুপ্রাণিত করেছে।’

বিএনপির মহাসচিব শোকবার্তায় আরো বলেন, ‘মহান আল্লাহর নিকট মোনাজাত করি, আল্লাহ পাক যেন তাঁকে বেহেস্ত নসিব করেন। আমি তাঁর শোকাহত পরিবারসহ ঘনিষ্ঠজনদের ধৈর্য ধারণের ক্ষমতা দানের জন্য দোয়া করছি। আমি তাঁর মৃত্যুতে গভীরভাবে শোকাহত হয়েছি। আমি মরহুম আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমীর বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি এবং শোকার্ত পরিবার, গুণগ্রাহী ও শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি জানাচ্ছি গভীর সমবেদনা।’