SylhetNews24.com

বিগত কয়েক বছরের সেরা রিভিউ পাওয়া সিনেমা

বিনোদন ডেস্ক

সিলেট নিউজ ২৪

প্রকাশিত : ০৮:০৯ পিএম, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ বৃহস্পতিবার

বিগত কয়েক বছর এর বলিউড ফিল্মগুলোর মধ্যে অন্যতম সেরা রিভিও পেয়েছে তাপসী পান্নু অভিনিত ‘থাপ্পড়’ মুভিটি।

কয়েকটি সাইট থেকে প্রাপ্ত রিভিও;

১.টাইমস অফ ইন্ডিয়া-৪.৫/৫
২.বলিউড লাইফ-৪.৫/৫
৩.জুম টিভি-৪.৫/৫
৪.গ্ল্যামশাম-৪.৫/৫
৫.মুম্বাই মিরর-৪/৫
৬.ফিল্মফেয়ার -৪/৫
৭.ইন্ডিয়া ফোরামস-৪/৫
৮.কইমই-৪/৫
৯.বলিউড বাবল-৪/৫
১০.তারান আদার্শ-৪/৫
১১.বলিউড হাংগামা-৪/৫
১২.মিড ডে-৪/৫
১৩.এনডিটিভি-৪/৫

সব রিভিউ সুপার পজিটিভ। অনেক নামকরা ক্রিটিক্সরাও ছবিটির ভূয়সী প্রশংসা করেছেন। তাপসী পান্নু ও অন্যান্য স্টারকাস্ট অনবদ্য অভিনয় করেছেন। সবাই বলেছেন তাপসীর নিস্তব্ধতাও অনেক কিছু বলে দেয়। সবাই একবাক্যে স্বীকার করেছেন ছবিটি সমাজের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ। সবাই বলছে, থাপ্পড় উচিত জায়গাতে পড়েছে।

গল্প সংক্ষেপ:
একটা থাপ্পড় বদলে দিতে পারে একটা সমাজ! হ্যা, বিশ্বাসযোগ্য। কিভাবে? কর্পোরেট দুনিয়ার সাফল্য উদযাপনের পার্টিতে স্ত্রী অমৃতা (তাপসী পান্নু)র গালে একটা থাপ্পড় মারলেন স্বামী বিক্রম (পাভেল গুলাটি)। আর সেখান থেকেই বদলে গেল গল্পের চিত্রনাট্য। বিক্রমকে নিয়েই যাঁর জীবন আবর্তিত-বিবর্তিত, সে কি পারবে এর প্রতিবাদ করতে? নাকি এরকম তো হয়েই থাকে ভেবে ক্ষমা করে দেবে স্বামীকে? সমাজের এই প্রচলিত ধারণার বিরুদ্ধে কি কোনও প্রশ্ন উঠে যাবে?

দিল্লির চেনা পরিবারের এক মেয়ে, ক্লাসিকাল ডান্স জানা মেয়ে অমৃতা। জীবন অন্য খাতে বইতেই পারত, কিন্তু সেরা গৃহবধূ হওয়াই ছিল তাঁর স্বপ্ন। সে কারণে নাচও ছেড়ে দেওয়া। বিক্রমও ভালো মানুষ। ক্যারিয়ার নিয়ে সদা ব্যস্ত। যদিও অফিসের রাজনীতির শিকার হলে সেই ঝাল মিটত স্ত্রীর উপরেই। সেরকমই একদিন পার্টিতে স্ত্রীর গালে এক চড়! আর তাতেই জীবন একেবারে ৩৬০ ডিগ্রি বদলে যাওয়া।

অনুভব সিনহা পরিচালিত `থাপ্পড়` ২ ঘণ্টা ২১ মিনিটের সামাজিক দলিল। গার্হস্থ্য হিংসার আয়না বললেই ভালো। বিয়ের পর যেখানে বার বার বলা হয়, লোকে কী বলবে বা সংসার অনেক বেশি গুরুত্বের- তেমন নানা প্রচলিত কথার বিরুদ্ধে প্রশ্ন তোলে এই সিনেমা। স্ত্রীকে ভালোবাসে বিক্রম, কিন্তু ক্যারিয়ার তৈরির নেশায় একজন পুরুষ কি হতে পারে!

ছবিতে তাপসীকে দেখা যাবে উচ্চ মধ্যবিত্ত পরিবারের উচ্চ শিক্ষিত নারীর ভূমিকায় যাকে বাধ্য করা হয় স্বামী গায়ে হাত তোলার পরও তাঁর সঙ্গে সংসার টিকিয়ে রাখতে।

অমৃতা চুপ করে থাকাতেই বিশ্বাসী। কিন্তু আচমকাই সেই চড়ের পর থেকে ভিতরে ভিতরে বদল হতে শুরু করে তাঁর। কষ্ট, অভিমান, রাগ- সব মিলে এক অন্য অমৃতার জন্ম হয়। পাশে অমৃতা পেয়ে যায় বাবাকে। আর তারপরই শুরু আসল নাটক।

ছবির গান মন কাড়বে। সমাজের বস্তাপচা ধারণাই এক চড় মারবে `থাপ্পড়`। বিয়ের পর সব কিছু হতে পারে, এই ধারণা বদলাতে বাধ্য করবে ছবিটি।