SylhetNews24.com

গোপালগঞ্জে ৭ম শ্রেনীর স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা

সিলেটনিউজ২৪.কম

প্রকাশিত : ১০:৪০ এএম, ২৮ জুলাই ২০১৫ মঙ্গলবার

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে ৭ম শ্রেনীর এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে। নিহত ওই ছাত্রী মামা বাড়ি থেকে ফেরার পথে ধর্ষন ও হত্যার শিকার হয়।

মঙ্গলবার রাতে উপজেলার সর্দি গ্রামের একটি ভিটা থেকে ওই স্কুল ছাত্রীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত রিক্তা আক্তার (১৪) মুকসুদপুর উপজেলার সর্দি গ্রামের রেজেক শেখের মেয়ে ও মুকসুদপুরের দিগনগর উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী।

এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ। লাশের ময়না তদন্তের জন্য আজ মঙ্গলবার দুপুরে গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

সিন্দিয়াঘাট পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক গিয়াস উদ্দিন জানান, ওই স্কুল ছাত্রী ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা থানার গঙ্গাধরদি গ্রামের মামা বাড়ি থেকে গ্রামের বাড়ি সর্দি গ্রামে আসছিল। এসময় সে বাড়িতে না আসায় তাকে অনেক খোজা খুজি করা হয়। রাতে বাড়ি থেকে প্রায় আঁধা কিলোমিটার দুরে সর্দি গ্রামের একটি পরিত্যাক্ত ভিটা থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

তিনি আরো জানান, ধারনা করা হচ্ছে তাকে ধর্ষনের পর হত্যা করা হতে পারে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাশ্ববর্তী ফতেপট্টি গ্রামের ৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ।