ঢাকা, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
SylhetNews24.com
শিরোনাম:
ব্রেকিং নিউজ--বরগুনায় রিফাত হত্যা মামলার প্রধান আসামি নয়ন বন্ড র‍্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

কালবৈশাখীর ছোবলে ঢাকাসহ সারাদেশে ১০ জনের মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৮ মে ২০১৯  

জ্যৈষ্ঠের শুরুতেই কালবৈশাখীর ছোবলে রাজধানীসহ সারাদেশে প্রাণ গেল অন্তত ১০ জনের। এর মধ্যে ঢাকায় ৩ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এ ছাড়া নওগাঁয় ৩ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জে ২ জন, রাজশাহী ও বগুড়ায় একজন করে প্রাণ হারিয়েছেন। 

এদিকে ঝড়ের কবলে পড়ে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অভ্যন্তরীণ কয়েকটি ফ্লাইট জরুরি অবতরণ করে। কয়েকটি ফ্লাইটের সিডিউল পরিবর্তন করা হয়। অভ্যন্তরীণ রুটের কয়েকটি ফ্লাইট ঢাকায় অবতরণ করতে না পেরে চট্টগ্রামের শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। এছাড়া পাবনার ভাঙ্গুড়ায় গাছ উপড়ে রেললাইনে পড়ে ঢাকার সঙ্গে উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গের ট্রেন চলাচল বন্ধ ছিল।

শুক্রবার সন্ধ্যায় আকস্মিক ঝড়ে ঢাকার বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের দক্ষিণ পাশের নামাজের প্যান্ডেল লণ্ডভণ্ড হয়ে যায়। ঝড়ে একজনের মৃত্যু ও আহত হয়েছেন অন্তত ২৫ জন। নিহত শফিকুল ইসলাম (৩৬) টায়ার কারখানায় কাজ করতেন।

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের পরিচালক (মসজিদ ও মার্কেট বিভাগ) মুহাম্মদ মহীউদ্দিন মজুমদার বলেন, শুক্রবার সাধারণত মসজিদে অসংখ্য মুসল্লি থাকেন। ঝড়ের সময়ে প্যান্ডেলের নিচে শতাধিক মুসল্লি ছিলেন।

বায়তুল মোকাররম মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম মুফতি মিজানুর রহমান জানান, রমজান মাস উপলক্ষে মসজিদের দক্ষিণ গেট এলাকার খালি জায়গায় বিশাল প্যান্ডেল তৈরি করা হয়েছিল। সেখানে রোজাদার মুসল্লিরা ইফতার ও নামাজ আদায় করেন। শুক্রবার ইফতার শেষে নামাজের প্রস্তুতির সময়ে হঠাৎ ঝড়ে প্যান্ডেলটি ভেঙে পড়ে। এতে অনেকেই নিচে চাপা পড়েন।

ফায়ার সার্ভিসের কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষের কর্মকর্তা রাসেল সিকদার বলেন, বায়তুল মোকাররমে দক্ষিণ গেটের প্যান্ডেল ভেঙে যাওয়ার খবরে তাদের দুটি উদ্ধারকারী দল সেখানে যায়। ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা কয়েকজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া বলেন, রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত ২৫ জন আহতকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। তাদের মধ্যে শফিক নামে একজন মারা যান। অন্য আহতদের কারও অবস্থাই গুরুতর নয়।

আহতদের মধ্যে সিটি এসবির এএসআই শরিফুল ইসলাম ছাড়াও রফিউজ্জামান, মনিরুল ইসলাম, আবদুল কুদ্দুস, জানে আলম, সাদিকুর রহমান, তারেক রহমান, মাসুদ, জহিরুল ইসলাম, সজীব, আওয়াল, বিপ্লব ও আমিন উল্লাহর নাম পাওয়া গেছে। আহত ২৫ জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শুক্রবার সকাল থেকেই ঢাকার আকাশ ছিল মেঘলা। রোদের সঙ্গে ছিল ভ্যাপসা গরম। সন্ধ্যা গড়াতেই হানা দেয় কালবৈশাখী। ঝড়ো হাওয়াসহ মাঝারি ধরনের বৃষ্টিপাত হয়েছে। সরকারি ছুটির দিন হওয়ায় ঝড়ো হাওয়া রাজধানীবাসীর স্বাভাবিক জীবনযাত্রায় দুর্ভোগের সৃষ্টি করেনি। বরং ভ্যাপসা গরমে অস্থির রাজধানীবাসীকে হঠাৎ বৃষ্টি স্বস্তি এনে দেয়। বৃষ্টির সঙ্গে আকস্মিক ঝড়ে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় গাছ উপড়ে পড়ে। ছিঁড়ে যায় বৈদ্যুতিক তার।

আবহাওয়াবিদ আব্দুল বারেক বলেন, এ সময়টায় কালবৈশাখী ঝড় স্বাভাবিক। এ ধরনের ঝড় জ্যৈষ্ঠ মাসে আরও কয়েকটি হতে পারে।

নওগাঁ প্রতিনিধি জানান, শুক্রবার বিকেলে জেলার পোরশা উপজেলার গানোইর বিলে ধান কাটার সময় বজ্রপাতে শফিনুর (২৮) ও হাসান (৩০) নামে দুই কৃষক এবং আত্রাইয়ের হাটকালুপাড়ার জাহাঙ্গীর আলম (২০) নামে আরেকজনের মৃত্যু হয়। নিহত শফিনুর গানোইর গ্রামের আজাদ হোসেনের ছেলে ও হাসান পাশের চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জের মৃত মতিউর রহমানের ছেলে। জাহাঙ্গীর আত্রাই উপজেলার হাটকালুপাড়া গ্রামের খোদাবপের ছেলে।

পোরশা থানার ওসি শাহিনুর ইসলাম ও আত্রাই থানার ওসি মোবারক হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, সদর উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা ইউনিয়নের শ্রীরামপুর মাঠে শুক্রবার বিকেলে ধান কাটার সময় বজ্রপাতে দুই কৃষকের মৃত্যু হয়। নিহতরা হলেন- শ্রীরামপুর গ্রামের মোতালেব হোসেনের ছেলে মোশাররফ হোসেন (৩৪) ও হযরত আলীর ছেলে রেজাবুল হক (৪৩)। এ সময় হযরত আলী সুজন নামে আরেক কৃষক আহত হন।

রাজশাহী ব্যুরো জানায়, পুঠিয়া উপজেলার বানেশ্বরে শুক্রবার সন্ধ্যায় কালবৈশাখীর সময় ঘরের চালার চাপায় পড়ে নিহত হন বানেশ্বর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুস সোবহান সরকার (৮০)। এদিকে ঝড়ের তাণ্ডবে রাজশাহীর অনেক গাছপালা ভেঙে যায়। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্যারিস রোডের অনেক গাছপালা ভেঙে পড়ে। বাগানের আম অর্ধেক ঝরে যায় বলেও চাষিরা জানান।

বগুড়া ব্যুরো জানায়, শুক্রবার বিকেলে বগুড়া শহরতলির শ্যামবাড়িয়া এলাকায় ঝড়ে গাছচাপা পড়ে শহীদুল ইসলাম (৩০) নামে ট্রাকের এক হেলপারের মৃত্যু হয়। শহীদুল শহরের সাবগ্রাম এলাকার বাসিন্দা। তিনি ট্রাকে করে শেরপুর যাওয়ার পথে গাছ ভেঙে ট্রাকের ওপর পড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

পাবনা অফিস জানায়, শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে পাবনার ভাঙ্গুড়ায় ঝড়ে গাছ উপড়ে রেললাইনের ওপর পড়ে। এতে ঢাকার সঙ্গে উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গের রেল যোগাযোগ বন্ধ ছিল। রাজশাহী থেকে ঢাকাগামী পদ্মা এপপ্রেস ট্রেন প্রায় ৪০০ যাত্রী নিয়ে ভাঙ্গুড়ার শরৎনগর স্টেশনে আটকা পড়ে। বড়ালব্রিজ স্টেশনের সহকারী মাস্টার আল মামুন হোসেন বলেন, গাছ সরানোর কাজ চলছে। রাত ১০টার মধ্যে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

ডোমার (নীলফামারী) প্রতিনিধি জানান, শুক্রবার ডোমার উপজেলার ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া দুই মিনিটের ঘূর্ণিঝড়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। বিধ্বস্ত হয় শতাধিক ঘরবাড়ি। উপড়ে গেছে শতবর্ষী বটগাছ। শুক্রবার ভোর ৪টা ১২ মিনিটে এই ঘূর্ণিঝড় মাত্র দুই মিনিট স্থায়ী হয়। পৌরসভার ৩, ৪ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। পরে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমেদ।

উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি জানান, উলিপুরে দুই দফা ঝড়ে ৩ গ্রামের অর্ধশতাধিক ঘরবাড়ি, দুটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান লণ্ডভণ্ড হয়ে যায়। উপড়ে যায় শতাধিক গাছপালা। কৃষকের পাকা ধান, পাটক্ষেত ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। শুক্রবার সকাল ৬টা ও সাড়ে ৮টায় উপজেলার বজরা ইউনিয়নের খামার বিররহিম, চরবজরা, সাতালস্কর গ্রামের ওপর দিয়েও ঝড় বয়ে যায়।

কুড়িগ্রাম-লালমনিরহাট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির উলিপুর জোনাল অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার ইয়াকুব আলী শেখ জানান, ঝড়ে বিভিন্ন এলাকার বৈদ্যুতিক খুঁটিসহ শতাধিক স্থানে গাছপালা তারের ওপর পড়ায় বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

চট্টগ্রাম ব্যুরো জানায়, বৈরী আবহাওয়ার কারণে ঢাকায় নামতে না পেরে চট্টগ্রাম শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে অভ্যন্তরীণ রুটের ফ্লাইটগুলো। শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে ঢাকায় হঠাৎ ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি শুরু হলে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অভ্যন্তরীণ ফ্লাইটের ওঠানামা বন্ধ করে দেওয়া হয়। ফলে এরপর বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সসহ বেসরকারি বিমান সংস্থার দুটি ফ্লাইট ঢাকায় নামতে না পেরে চট্টগ্রাম চট্টগ্রাম বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

এর মধ্যে রাজশাহী থেকে ছেড়ে আসা ঢাকামুখী বিমানের ফ্লাইট সন্ধ্যা ৭টার দিকে এবং এরপর সৈয়দপুর থেকে ঢাকামুখী রিজেন্ট এয়ারওয়েজের আরেকটি ফ্লাইট চট্টগ্রামে অবতরণ করে বলে জানান চট্টগ্রাম শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ব্যবস্থাপক উইং কমান্ডার এবিএম সরওয়ার ই জামান। ঢাকায় আবহাওয়া স্বাভাবিক না হলে রাতের মধ্যে আরও দু'একটি ফ্লাইট চট্টগ্রামে অবতরণ করতে পারে বলে জানান তিনি।

আরও পড়ুন
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত