ঢাকা, ২৩ জানুয়ারি, ২০২১
SylhetNews24.com
শিরোনাম:
করোনার টিকা পেলেই সম্মুখসারির যোদ্ধাদের অগ্রাধিকার: প্রধানমন্ত্রী অনেকদূর এগিয়েছি সত্য,তবে যেতে হবে আরও বহুদূর:প্রধানমন্ত্রী সত্য বলায় হয়তো আমার চাকরিও থাকবে না:ওবায়দুল কাদেরের ভাই ভ্যাকসিন কবে আসবে সেটা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না: ভারতীয় হাইকমিশন টিকা নিয়ে সরকার ‘তেলেসমাতি’ খেলা শুরু করেছে:রিজভী ২৮ জন সিলেটিসহ মাত্র ৩৪ যাত্রী নিয়ে লন্ডন থেকে আসলো বিমান

সিলেট প্রেসক্লাব-মাহা ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্বোধন

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ৫ ডিসেম্বর ২০২০  

সিলেটের জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম বলেছেন, করোনাকালীন এই দু:সময়ের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত সাংবাদিকরা সচেতনতা তৈরি, মানুষের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত ও উন্নতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে আসছেন। 

তবে সার্বক্ষনিক কাজে থাকলেও শারীরিক ও মানসিক প্রশান্তির প্রয়োজন রয়েছে। খেলাধুলার মাধ্যমে সেই মনন চর্চার প্রয়োগ ঘটবে।

শনিবার দুপুরে সিলেট প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সিলেট প্রেসক্লাব-মাহা অভ্যন্তরীণ বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।


সিলেট প্রেসক্লাব সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ও ফ্যাশন হাউস মাহা’র স্বত্তাধিকারী মাহি উদ্দিন আহমদ সেলিম।


শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ক্রীড়া পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক শেখ আশরাফুল আলম নাসির। প্রধান ও বিশেষ অতিথিকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান আহ্বায়ক কমিটির সদস্য আবু সাঈদ মো. নোমান ও মো. মারুফ হাসান।

বক্তব্য রাখেন ক্লাবের সাবেক সভাপতি ইকরামুল কবির, সহ সভাপতি আব্দুল কাদের তাপাদার, সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রশিদ মো. রেনু, চ্যানেল এস’র বিশেষ প্রতিনিধি আবদুল মালিক জাকা, সাবেক সহ-সভাপতি আতাউর রহমান আতা, দৈনিক সিলেট মিরর’র বার্তা সম্পাদক জিয়াউস শামস শাহীন ও আরটিভির স্টাফ রিপোর্টার কামকামুর রাজ্জাক রুনু। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন ক্রীড়া ও সংস্কৃতি সম্পাদক মারুফ আহমেদ।

জেলা প্রশাসক তাঁর বক্তব্যে আরো বলেন, করোনা প্রতিরোধে প্রশাসন সর্বোচ্চ আন্তরিক রয়েছে। বিদেশ যাত্রীদের করোনা টেস্ট করতে গিয়ে প্রথম দিকে কিছুটা বেগ পেলেও পরবর্তীতে যথাযথভাবে তা করা হচ্ছে। তবে করোনা মোকাবেলায় সর্বোচ্চ গুরুত্ব হচ্ছে জনসচেতনতা তৈরি। এক্ষেত্রে সাংবাদিকদের সহযোগিতা রয়েছে। তিনি আগামীতে আরো বেশি সহযোগিতা প্রত্যাশা করেন। এছাড়া সিলেটের উন্নয়ন ও ভালো উদ্যোগ গ্রহণে সকলকে পাশে থাকার আহ্বান জানান।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মাহি উদ্দিন আহমদ সেলিম বলেন, জেলা ক্রীড়া সংস্থা এখন একটি শক্তিশালী সংগঠন। বিগত সময়ে দুটি প্যানেল থাকলেও এবার সবাই এক হয়ে আমাদেরকে পরিচালনার দায়িত্ব দিয়েছেন। যা সিলেটের খেলাধুলার অগ্রযাত্রায় সাহসী ভূমিকা রাখতে সহায়তা করবে। তিনি জেলা প্রশাসকসহ সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, সাংবাদিকদের সর্বক্ষেত্রে প্রসংশনীয় ভূমিকা রয়েছে। এ সময় তিনি সিলেট প্রেসক্লাবে গত দশ বছর ধরে অভ্যন্তরীণ ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় পৃষ্ঠপোষকতা করে আসছেন জানিয়ে বলেন, কর্তৃপক্ষ সুযোগ দিলে এর ধারাবাহিকতা তিনি রাখতে চান।

প্রেসক্লাব সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকী অনুষ্ঠানে আগত অতিথিবৃন্দ ও উপস্থিত ক্লাব সদস্যদের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, নানা ব্যস্ততার মধ্যেও এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী ক্লাব সদস্যরা কিছুটা হলেও প্রশান্তি লাভ করবেন। 

অতিথি ও সিনিয়র সাংবাদিকদের প্রাণবন্ত বক্তব্য শেষে দাবার চাল দিয়ে প্রতিযোগিতার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন প্রধান ও বিশেষ অতিথি।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ক্লাবের সাবেক সহ-সভাপতি বাপ্পা ঘোষ চৌধুরী, সাবেক কোষাধ্যক্ষ খালেদ আহমদ ও মো. আফতাব উদ্দিন, সহ-সাধারণ সম্পাদক আহমাদ সেলিম, পাঠাগার ও প্রকাশনা সম্পাদক কবির আহমদ, কার্যনির্বাহী সদস্য আশকার ইবনে আমিন লস্কর রাব্বী, ক্লাব সদস্য জেড এম শামসুল, মো. মুহিবুর রহমান, চৌধুরী দেলওয়ার হোসেন জিলন, মো. আমিরুল ইসলাম চৌধুরী এহিয়া, আনিস রহমান, এম এ মতিন, আহবাব মোস্তফা খান, গোলজার আহমেদ, নৌসাদ আহমেদ চৌধুরী, খালেদ আহমদ, মো. দুলাল হোসেন, হাসান মো. শামীম, ইদ্রিছ আলী, দিপক বৈদ্য দিপু, শরীফুল ইসলাম চৌধুরী, এম রহমান ফারুক, আবুল কালাম কাওছার, সহযোগী সদস্য হুমায়ুন কবির লিটন ও মাহমুদুর রহমান মিলন প্রমুখ। 

আরও পড়ুন
খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত