ঢাকা, ২৯ অক্টোবর, ২০২০
SylhetNews24.com
শিরোনাম:
সারাদেশে প্রাথমিক শিক্ষকদের বদলি বন্ধ ১ নভেম্বর থেকে ওমরাহ করতে পারবেন বাংলাদেশীসহ বিদেশিরা সেনাপ্রধানের ফেসবুকে কোনো অ্যাকাউন্ট নেই: আইএসপিআর নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে হাজী সেলিমের ছেলের মারধর,থানায় জিডি বিচার না হওয়া পর্যন্ত সিলেটবাসী রায়হানের পরিবারের পাশে থাকবে-আরিফ ‘আমার ছেলে কবরে,খুনি কেন বাহিরে’,অনশনকে ঘিরে হঠাৎ তীব্র আন্দোলন জাতির পিতা নিজেও সাংবাদিকতার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন: প্রধানমন্ত্রী

সিলেট জেলায় ইবতেদায়ীতে পাসের হার ৯৩. ২৪ শতাংশ, জিপিএ-৫ ১৯৩

স্টাফ রিপোর্টার

প্রকাশিত: ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯  

সিলেট জেলায় ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষায় মোট পাসের হার ৯৩. ২৪ শতাংশ আর জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৯৩ জন শিক্ষার্থী।

জেলায় মোট অংশগ্রহণকারী পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিলো ৭ হাজার ২ শত ৪৮ জন এর মধ্যে পাস করেছে ৬ হাজার ১ শত ৭১ শিক্ষার্থী। আর জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ শত ৩৯ জন শিক্ষার্থী।

মঙ্গলবার (৩১ ডিসেম্বর) দুপুর ২ টায় সিলেট জেলা প্রাথমিক অফিস থেকে প্রাপ্ত ফলাফলে এ তথ্য জানা গেছে।

সিলেট জেলার মোট ১৩ টি উপজেলার মধ্যে পাসের হারে এগিয়ে দক্ষিণ সুরমা উপজেলা। এ উপজেলায় ৮ শত ৩৭ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে পাস করেছে ৭ শত ৮০ জন। আর জিপিএ-৫ পেয়েছে ৯ জন। আর পাসের হার ৯৯. ১০ শতাংশ।

এছাড়াও সদর উপজেলায় ১২ শত ৮৫ জন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে ১ হাজার ৪৪ জন পাস করেছে। আর জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩৬ জন। আর পাসের হার ৮৯.৯৭ শতাংশ।

ফেঞ্চুগঞ্জে মোট ৪ শত ৮০ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছে ৪ শত ১৪ জন। এদের মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪ জন। এ উপজেলায় পাসের হার ৯৬.০৮ শতাংশ।

গোলাপগঞ্জ উপজেলায় পাসের হার ৯৫.১১ শতাংশ। এ উপজেলায় ৫ শত ৮৬ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে পাস করেছে ৫ শত ১৭ জন। আর জিপিএ-৫ পেয়েছে পাননি কোন শিক্ষার্থী।

বিয়ানীবাজার উপজেলায় ৫ শত ২৩ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিয়ে পাস করেছে ৪ শত ৬০ জন। আর জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৭ জন। এ উপজেলায় পাসের হার ৯৩.৬৮ শতাংশ।

জকিগঞ্জ উপজেলায় ৬ শত ৮৮ জন পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ৫ শত ৯৮ জন শিক্ষার্থী। আর জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪৮ জন। আর পাসের হার ৯৭.২৪ শতাংশ।

জৈন্তাপুর উপজেলায় ২ শত ১৩ জন পরীক্ষায় অংশ নিয়ে পাস করেছে ১ শত ৮৩ জন শিক্ষার্থী। আর জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৯ জন। এ উপজেলায় পাসের হার ৯৬.৯১ শতাংশ।

অপরদিকে কানাইঘাট উপজেলায় মোট ৭ শত ৩৪ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাস করেছেন ৬ শত ৪২ জন শিক্ষার্থী। আর জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৮ জন শিক্ষার্থী। এ উপজেলায় পাসের হার ৯৪.২৮ শতাংশ।

এদিকে বালাগঞ্জে ২ শত ১৩ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাস করেছে ১ শত ৫৬ জন। আর জিপিএ-৫ পেয়েছে ১১ জন। পাসের হার দাঁড়িয়েছে ৮৫.৩৭ শতাংশ।

আর বিশ্বনাথ উপজেলায় ৭ শত ৫৫ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে পাস করেছে ৬ শত ৩ জন। আর জিপিএ-৫ পেয়েছে মাত্র ১ জন শিক্ষার্থী। সব মিলিয়ে এ উপজেলায় পাসের হার মোট ৮৯.৮৩ শতাংশ।

গোয়াইনঘাট উপজেলায় ২ শত ৬৬ জন আর পাস করেছে ১ শত ৯১ জন। আর জিপিএ-৫ পেয়েছে ৬ জন শিক্ষার্থী। সব মিলিয়ে গোয়াইনঘাট উপজেলার পাসের হার ৮৬.১৪ শতাংশ।

অপরদিকে কোম্পানিগঞ্জ উপজেলায় ২ শত ৯৭ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাস করেছে ২ শত ২৪ জন। আর জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩ জন। আর পাসের হার ৯৮.৭১ শতাংশ।

এদিকে ওসমানীনগর উপজেলায় পাসের হার ৮৮.৯৪। এ উপজেলায় মোট ১১ শত ৬১ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিয়ে পাস করেছে মাত্র ৩ শত ৫৯ জন। আর জিপিএ-৫ পেয়েছে ১১ জন।

আরও পড়ুন
শিক্ষা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত