ঢাকা, ৩১ অক্টোবর, ২০২০
SylhetNews24.com
শিরোনাম:
বিশ্বনাথের দশঘর ইউপি নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী বিজয়ী রিজার্ভের নতুন মাইলফলক, ৪১ বিলিয়ন ডলার ছাড়াল ইসরায়েলের সামরিক বাহিনীর ব্যবহৃত উজি পিস্তল উদ্ধার ফ্রান্স হামলা: নিস-এ `সন্ত্রাসী হামলা`য় ছুরিকাঘাতে নিহত ৩ ১ নভেম্বর থেকে ওমরাহ করতে পারবেন বাংলাদেশীসহ বিদেশিরা

সিলেট জেলার প্রতিটি থানাকে ধুমপানমুক্ত ঘোষণা করা হয়েছে: পুলিশ সুপার

প্রকাশিত: ২৪ এপ্রিল ২০১১   আপডেট: ২৪ এপ্রিল ২০১১


হৃদরোগের প্রধান চারটি কারণের মধ্যে তামাক সেবন অন্যতম। বাকি তিনটি কারণ হচ্ছে-উচ্চ রক্তচাপ, কোলেস্টেরল ও ডায়াবেটিস। তামাক সেবন বন্ধ করলে মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ কখনো হবে না।

‘মিডিয়া ফর টোব্যাকো কন্ট্রোল’ শীর্ষক দুইদিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালার সমাপনী অনুষ্ঠানে বক্তারা এসব কথা বলেন। বেসরকারী সংগঠন প্রজ্ঞা ও প্রেস ইনিস্টিটিউট অব বাংলাদেশ (পিআইবি) যৌথ উদ্যোগে ও সীমান্তিক তামাক মুক্ত সিলেট প্রকল্পের উদ্যোগে এ কর্মশালার আয়োজন করা হয়।

কর্মশালার সমাপনী দিনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন-সিলেটের পুলিশ সুপার সাখাওয়াত হোসেন। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ইউনাইটেড ফোরাম এগেইনস্ট ট্যোবাকো’র সিলেট বিভাগীয় কো-অর্ডিনেটর ও ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন সিলেটের সেক্রেটারি ডা. আমিনুর রহমান লস্কর।

বক্তব্য রাখেন সীমান্তিকের সদস্য সচিব শামীম আহমদ দৈনিক সিলেটের ডাক-এর বার্তা সম্পাদক সমরেন্দ্র বিশ্বাস সমর, সাংবাদিক মনোয়ার জাহান চৌধুরীর,  ফেরদৌস আহমেদ, সামছুল ইসলাম, সৈয়দ বদরুল করিম, মাহবুবুল আলম প্রমুখ। অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন সীমান্তিকের কর্মকর্তা আলমগীর শিকদার।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে পুলিশ সুপার বলেন, বাংলাদেশ তামাকজনিত রোগে প্রতি বছর ৫ হাজার কোটি টাকার আর্থিক ক্ষতি হয়। আর এ থেকে আয় হয় ২৪০০ কোটি টাকা। অর্থাৎ এ ক্ষেত্রে দেশের নিট ক্ষতি প্রায় ২৬০০ কোটি টাকা।

তিনি বলেন, ধুমপায়ীরা ৮ ধরণের তামাকজনিত রোগে আক্রান্ত হয়। কাজেই ধুমপানের ক্ষতিকর প্রভাব সম্পর্কে জনগণকে সচেতন করতে হবে। পুলিশ সুপার বলেন, সিলেট জেলার প্রতিটি থানাকে ধুমপানমুক্ত ঘোষণা করা হয়েছে।

ডা: আমিনুর রহমান লস্কর বলেন, ধুমপান প্রতিরোধে মিডিয়া সবচেয়ে বড় অস্ত্র। তামাক সেবনের ভয়াবহতার বিষয়টি জনগণকে জানাতে হবে। আর এ জন্য মিডিয়া কর্মীদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে।

গত বুধবার সকালে কর্মশালার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান। সিলেটের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শহীদুল আলম এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন।

 

আরও পড়ুন
ঐতিহ্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত