ঢাকা, ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১
SylhetNews24.com
শিরোনাম:
ক্ষমতা ছেড়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি মিয়ানমার সেনাবাহিনীর মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ক্ষমতা দখল: প্রেসিডেন্ট ও সু চি গ্রেফতার করোনার টিকা পেলেই সম্মুখসারির যোদ্ধাদের অগ্রাধিকার: প্রধানমন্ত্রী অনেকদূর এগিয়েছি সত্য,তবে যেতে হবে আরও বহুদূর:প্রধানমন্ত্রী সত্য বলায় হয়তো আমার চাকরিও থাকবে না:ওবায়দুল কাদেরের ভাই ভ্যাকসিন কবে আসবে সেটা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না: ভারতীয় হাইকমিশন টিকা নিয়ে সরকার ‘তেলেসমাতি’ খেলা শুরু করেছে:রিজভী ২৮ জন সিলেটিসহ মাত্র ৩৪ যাত্রী নিয়ে লন্ডন থেকে আসলো বিমান

সাবেক অধ্যক্ষ গিয়াস উদ্দিনের বিরুদ্ধে তদন্তে নেমেছে দুদক

বিশেষ প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

সরকারি নীতিমালাকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে তেষট্টি বছর বয়সেও পদ আকড়ে থাকা নগরীর মইন উদ্দিন আদর্শ মহিলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ মো. গিয়াস উদ্দিনের বিরুদ্ধে তদন্তে নেমেছে দুদক।

দুর্নীতি দমন কমিশনের সিলেট জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক বরাবরে প্রভাষক মো. মাহবুবুর রউফ নয়ন-এর দায়ের করা অভিযোগের ভিত্তিতে এই তদন্ত শুরু করেছে দুদক।

টেন্ডার ও কোটেশন ছাড়া কলেজের আসবাবপত্র ক্রয়, নিয়ম বহির্ভুতভাবে খন্ডকালীন শিক্ষক নিয়োগ বাণিজ্য, কলেজ তহবিলের টাকা আত্মসাৎ, স্বজনপ্রীতিসহ জ্ঞাত আয় বহির্ভুত স্থাবর-অস্থাবর সম্পদ অর্জনের বিষয় উল্লেখ করে প্রভাষক মো. মাহবুবুর রউফ নয়ন গত বছরের ৫ জানুয়ারি দুর্নীতি দমন কমিশনের সিলেট জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক বরাবরে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। 

অভিযোগটি পেয়ে তা আমলে নিয়ে এ বিষয়ে তদন্ত করতে গত বছরের ২৬ নভেম্বর সিলেট জেলা প্রশাসকের কাছে চিঠি দেয় দুদক।

এ নির্দেশনার পরিপ্রেক্ষিতে সিলেটের জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল হক অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) আ ন ম বদরুদ্দোজাকে  বিষয়টির তদন্তভার ন্যস্ত করেন। পরে ২২ ডিসেম্বর সিলেট জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে উভয়পক্ষের উপস্থিতিতে একটি শুনানি হয়। সিলেট জেলা প্রশাসক কার্যালয় থেকে শীঘ্রই এ বিষয়ে প্রতিবেদন দুদকের কাছে প্রেরণ করা হবে বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে সিলেট অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) আ ন ম বদরুদ্দোজা বলেন, তদন্ত হচ্ছে। খুব দ্রুত আমরা প্রতিবেদন দুদক বরাবরে পাঠিয়ে দেবো।

এর আগে সিলেট নগরীর শামীমাবাদে অবস্থিত মইন উদ্দিন আদর্শ মহিলা কলেজের সেই ‘আলোচিত’ অধ্যক্ষ মো. গিয়াস উদ্দিনের বিরুদ্ধে প্রতারণা ও জাল-জালিয়াতি মামলা দায়ের করেন কলেজের ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক মো. মাহবুবুর রউফ। সেটি তদন্ত করছে সিলেট জেলা পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ।

আরও পড়ুন
শিক্ষা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত