ঢাকা, ২২ অক্টোবর, ২০১৯
SylhetNews24.com
শিরোনাম:
ব্রেকিং নিউজ--বরগুনায় রিফাত হত্যা মামলার প্রধান আসামি নয়ন বন্ড র‍্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

শ্বশুরবাড়িতে মাহি: ‘সিলেটেই আমরা হানিমুন করে ফেলবো,সিলেটই হানিমুনের জন্য যুতসই’

প্রকাশিত: ২১ জুলাই ২০১৬   আপডেট: ২১ জুলাই ২০১৬

বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠান হয়ে গেছে। এবার কোমর বেঁধে সংসার করতে নামার পালা। মাহি নিজেও মুখিয়ে ছিলেন এতোদিন।

পুরো সংবর্ধনা অনুষ্ঠান জুড়ে নায়িকার চোখেমুখে ছিলো অস্থিরতা। কীসের? মাহি বলেও দিলেন, ‘অনুষ্ঠান কখন শেষ হবে, কতো তাড়াতাড়ি শ্বশুরবাড়ি যেতে পারবো, সেই টেনশন’।

ঢাকাই ছবির নায়িকা মাহিয়া মাহি বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হন গত ২৫ মে। বুধবার (২০ জুলাই) রাতে ঢাকার ক্যান্টনমেন্টে সেনামালঞ্চ মিলনায়তনে আয়োজন করা হয় মাহি-অপুর বিবাহোত্তর সংবর্ধনা।

সেখানে মাহি জানালেন, টানা দুই মাসের ছুটিতে যাচ্ছেন তিনি। এ দুই মাস একেবারেই সংসারে ডুবে থাকবেন। কোনো ধরণের শুটিংয়ে অংশ নেবেন না। এ দিনগুলো তিনি কাটাবেন শুধুই ‘সিলেটি বউ’ হিসেবে

বিয়ের পর এই প্রথম আনুষ্ঠানিকভাবে শ্বশুরবাড়ি গেলেন চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। ২৫ মে পারভেজ মাহমুদ অপুকে বিয়ে করেন তিনি।  ঘরোয়াভাবে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা করা হয়। তখন মাহি জানিয়েছিলেন, ঘটা করে তার বিয়ের অনুষ্ঠান হবে। স্বামীর হাত ধরে শ্বশুরবাড়ি যাবেন। মাহি তার কথা রেখেছেন।

বুধবার ঢাকা সেনানিবাসের সেনামালঞ্চ মিলনায়তনে বিবাহোত্তর সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়। এর পর আজ সকালে শ্বশুরবাড়ি সিলেটে যান মাহি। এর আগে ১৭ জুলাই মাহির গ্রামের বাড়িতেও বিবাহোত্তর সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়েছিল।

 রাতে মাহি বলেন,  ‘সিলেটেই আমরা হানিমুন করে ফেলবো। এমন অসাধারণ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যমন্ডিত জায়গা আছে আমাদের দেশে। এখানে আমাদের বাড়ি। এটাই তো হানিমুনের জন্য যুতসই।’

মাহি আরও বলেন, ‘শ্বশুরবাড়ি যাচ্ছি। তাই স্নায়ুচাপে আছি। শ্বশুবাড়িতে গিয়ে কী কী করবো, কীভাবে থাকবো, কোনদিকে তাকাবো, ওখানকার লোকজন আমাকে কীভাবে নেবেন, এসব নিয়েই স্নায়ুচাপ।

আরও পড়ুন
বিনোদন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত