ঢাকা, ২৮ জানুয়ারি, ২০২১
SylhetNews24.com
শিরোনাম:
করোনার টিকা পেলেই সম্মুখসারির যোদ্ধাদের অগ্রাধিকার: প্রধানমন্ত্রী অনেকদূর এগিয়েছি সত্য,তবে যেতে হবে আরও বহুদূর:প্রধানমন্ত্রী সত্য বলায় হয়তো আমার চাকরিও থাকবে না:ওবায়দুল কাদেরের ভাই ভ্যাকসিন কবে আসবে সেটা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না: ভারতীয় হাইকমিশন টিকা নিয়ে সরকার ‘তেলেসমাতি’ খেলা শুরু করেছে:রিজভী ২৮ জন সিলেটিসহ মাত্র ৩৪ যাত্রী নিয়ে লন্ডন থেকে আসলো বিমান

র‌্যাবের নামে চাঁদাবাজি, র‌্যাবের খাচায়ই বন্দি ৩ প্রতারক

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

প্রকাশিত: ৩ ডিসেম্বর ২০২০  

সিলেটে দীর্ঘদিন ধরে র‌্যাবের কথা বলে বিপুল পরিমাণ টাকা চাঁদা তুলতো তারা তিনজন। সেই সঙ্গে করতো মাদকের কারবারও। তবে শেষ পর্যন্ত তাদেরকে পাকড়াও হতে হয়েছে র‌্যাবের হাতে।

আটক তিনজন হচ্ছেন জাকির, জিয়ারত ও লাভলু।  তারা তিনজনেরই বাড়ি সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলায়। তাদেরকে গতকাল বুধবার (২ ডিসেম্বর) সিলেট শহরতলির খাদিমনগর বাগানবাড়ী এলাকা থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৯।

র‌্যাব জানায়,  গোয়াইনঘাট উপজেলার ছৈলাখেল গ্রামের মৃত আনসার আলী খানের ছেলে জাকির হোসেন (৫২) ও জিয়াউল খান জিয়ারত (৪৩) এবং একই উপজেলার কালিনগর গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে রাশেদ পারভেজ লাভলু (৩৬) দীর্ঘদিন ধরে জাফলং, গোয়াইনঘাট এবং কোম্পানিগন্ঞ্জ এলাকায় র‌্যাবের নাম করে চাঁদাবাজি করে আসছিল।

তারা নিজেদেরকে র‌্যাবের নিয়োজিত লোক এবং চাঁদার সিংহভাগই র‌্যাব-৯-কে প্রদান করা হয় বলে দাবি করতো। একই সঙ্গে তারা মাদক ব্যবসাও পরিচালনা করে আসছিলো।

এমন  অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত হওয়ার পর মঙ্গলবার দিবাগত (২ ডিসেম্বর) রাত সাড়ে ১২টার দিকে র‌্যাব ৯ এর একটি দল সিলেট শহরতলির খাদিমনগর বাগানবাড়ী এলাকায় অভিযান চালিয়ে এ তিনজকে আটক করে।  

এসময় তাদের কাছ থেকে ৩০ বোতল ফেনসিডিল, ২৮ বোতল অফিসার্স চয়েস, ৬ বোতল বিয়ার ও মাদক পরিবহনের একটি প্রাইভেট কার জব্দ করে র‌্যাব।

র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত মাদক কারবারিরা দীর্ঘদিন ধরে র‌্যাবের কথা বলে বিভিন্নজনের থেকে বিপুল অংকের টাকা চাঁদা তুলে  আসছে বলে স্বীকার করে। মাদকদ্রব্যসহ আটককৃতদের সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

আরও পড়ুন
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত