ঢাকা, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
SylhetNews24.com
শিরোনাম:
ব্রেকিং নিউজ--বরগুনায় রিফাত হত্যা মামলার প্রধান আসামি নয়ন বন্ড র‍্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

যুক্তরাষ্ট্রে একই পরিবারের ৮ জনসহ ১৩ জনকে গুলি করে হত্যা

প্রকাশিত: ২৪ এপ্রিল ২০১৬  

যুক্তরাষ্ট্রের পৃথক তিনটি বন্দুক হামলায় অন্তত ১৩ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ওহাইও অঙ্গরাজ্যে হত্যা করা হয়েছে একই পরিবারের ৮ জনকে।

খবর বার্তা সংস্থা এএফপিসহ আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলোর খবরে বলা হয়, ওহাইও অঙ্গরাজ্যের একটি গ্রামীণ এলাকায় শুক্রবার এক ভয়াবহ বন্দুক হামলায় এক কিশোরসহ একটি পরিবারের ৮ সদস্য নিহত হয়েছে।

শেরিফ চার্লেস রিডার সাংবাদিকদের বলেন, ওহাইওতে কাছাকাছি অবস্থিত তিনটি বাড়িতে ৭ জনের মৃতদেহ পাওয়া গেছে। পরে পৃথক একটি স্থানে আরো একজনের মৃতদেহ পাওয়া যায়।

তিনি আরো বলেন, এই ঘটনায় নিহতদের মধ্যে একজন কিশোর ছাড়া সবাই প্রাপ্ত বয়স্ক। কিশোরটির বয়স ১৬ বছর। তারা সকলেই একই পরিবারের সদস্য। এই ঘটনায় এক নবজাতকসহ তিনটি শিশু জীবিত রয়েছে। নবজাতক শিশুটির বয়স ৪ দিন। অন্য শিশু দুটির বয়স ৬ মাস ও ৩ বছর।

কর্তৃপক্ষ এখন পর্যন্ত কি কারণে এই হত্যাকাণ্ডটি ঘটেছে তা জানতে পারেনি। এই ঘটনায় অন্তত একজন সন্দেহভাজন বন্দুকধারী এখনোও পালিয়ে বেড়াচ্ছে। এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে এখনো কাউকে গ্রেফতার কথা হয়নি।

ওহাইওর অ্যাটর্নী জেনারেল মাইক ডিওয়াইন বলেন, এই ঘটনায় নিহতদের প্রত্যেকের মাথায় গুলি করে হত্যা করা হয়েছে বলে মনে হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, প্রথমিকভাবে এই সিদ্ধান্তে উপনীত হওয়া যাচ্ছে যে এদের কেউই আত্মহত্যা করেনি।

এর আগে জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যে বন্দুকধারীদের অপর দুটি হামলায় ৫ জন নিহত হয়। কলাম্বিয়া কাউন্টি শেরিফ অফিসের কর্মকর্তারা বলেন, উত্তরাঞ্চলীয় জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যে অপর দুটি পৃথক ঘটনায় ৫ জনকে মৃত অবস্থায় পাওয়া গেছে। পারিবারিক কলহের জের ধরে এই হত্যাকাণ্ডগুলো ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

স্থানীয় শবপরীক্ষক ভারনন কোলিন্স বলেন, দুটি পৃথক বন্দুক হামলার ঘটনায় ৫ জন নিহত হয়েছে। ঘটনা দুটির মধ্যে সম্পৃক্ততা থাকতে পারে বলে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রে প্রতি বছর আগ্নেয়াস্ত্রের গুলিতে প্রায় ৩০ হাজার লোক প্রাণ হারায়।

আরও পড়ুন
পর্যটন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত