ঢাকা, ২২ জুন, ২০২১
SylhetNews24.com
শিরোনাম:
দক্ষিণ সুরমায় কিশোরকে অপহরণকালে আটক ১৬ জনকে পুলিশে সোপর্দ বিমান বিধ্বস্ত হয়ে বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় `টারজান` স্ত্রীসহ নিহত মন্ত্রিসভার বৈঠকে স্থানীয় প্রশাসনকে লকডাউনের ক্ষমতা দেয়া হয়েছে সানলাইফ ইন্স্যুরেন্সের প্রতারণা স্বাস্থ্যমন্ত্রীর বোনের বিরুদ্ধে দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর দেশে এলো ফাইজারের ১ লাখ ৬০০ ডোজ টিকা

মুসলামানদের রক্তে রঞ্জিত মোদির হাত: দিরাইয়ে আল্লামা বাবুনগরী

দিরাই প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৬ মার্চ ২০২১  

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমীর আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী বলেছেন, ইসলামকে মুছে ফেলতে নাস্তিকরা উঠে পড়ে লেগেছে। 

ইসলামের বিরোধিতাকারীরা কখনও টিকে থাকতে পারেনি। নমরুদ, ফেরাউন ইসলামের বিরোধিতা করে উৎখাত হয়েছে। ভারতের কসাই মোদি মুসলমানদের গাজরের মতো কেটে কেটে হত্যা করেছেন। তারাও টিকতে পারবেন না।

সোমবার সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলা হেফাজতে ইসলাম আয়োজিত শানে রিসালত সম্মেলন প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বাবুনগরী বলেন, মুসলামান হিসেবে ইসলাম ও রাসূলের পক্ষে কথা বলবো। এতে কারো গায়ে লাগলে কিছুই করার নেই। বাংলাদেশেও ইসলামকে মুছে ফেলার জন্য কিছু নাস্তিক উঠে পড়ে লেগেছে।

তিনি বলেন, কসাই মোদিকে বাংলাদেশে ঢুকতে দেয়া হবে না। যারা নবীর নামে কুৎসা রটনা করে বিরুদ্ধাচরণ করে তাদের বিরুদ্ধে সংসদে আইন পাসের মধ্য দিয়ে শাস্তির বিধান রাখতে  হবে।

ভারতের উচ্চ আদালতে পবিত্র কোরআনের ২৬টি আয়াত বাতিলের রিট গ্রহণ হয় কীভাবে প্রশ্ন রেখে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমীর আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী বলেছেন, এটি ইসলাম ও মুসলমানদের বিরুদ্ধে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নতুন ষড়যন্ত্র। গুজরাট ও কাশ্মীরের মুসলামানদের রক্তে রঞ্জিত এই মোদির হাত। 

যে দেশের সরকার মুসলমানদের নাগরিক অধিকার হরণ করে দেশ থেকে বিতারিত করতে চায়। সেই ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেদ্র মোদিকে নব্বইভাগ মুসলমানের বাংলাদেশে আসতে দেয়া হবেনা। 

হেফাজত আমীর আরোও বলেন, মুসলামান হিসেবে ইসলাম ও রাসুলের পক্ষে কথা বলবো, এতে কারো গায়ে লাগলে কিছুই করার নেই। বাংলাদেশেও ইসলামকে মুছে ফেলার জন্য কিছু নাস্তিক উঠে পড়ে লেগেছে। নাস্তিক্যবাদের বিরুদ্ধে আন্দোলন করতে প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে দেশের সবচেয়ে বড় অরাজনৈতিক ইসলামী সংগঠন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ। 

২০১৩ সালের ৫ মে যেভাবে শাপলা চত্তরে আন্দোলনের মাধ্যমে নাস্তিকদের কবর রচনা হয়েছে। নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফর বাতিল না করলে প্রয়োজনে আবারো শাপলা চত্তরে জড়ো হয়ে আন্দোলনের ডাক দেয়া হবে। খতমে নবুয়তের সিংহাসনকে বুলন্দ করার জন্য হেফাজতের নেতৃত্বে জীবন দিতে প্রস্তুত থাকার আহবান জানিয়ে তিনি বলেন, অবিলম্বে নবী মোহাম্মদ (স) এর কটাক্ষকারীদের বিরুদ্ধে জাতীয় সংসদে মৃত্যুদন্ডাদেশের আইন পাশ করতে হবে। কাদিয়ানীদের কাফের ঘোষণা করতে হবে।


সোমবার বিকালে হেফাজতের দিরাই উপজেলা সভাপতি মাওলানা আজিজুর রহমানের সভাপতিত্বে মাওলানা মুখতার হোসেন চৌধুরী, মাওলানা সিহাব উদ্দিন ও মাওলানা উবায়দুল হক চৌধুরীর যৌথভাবে সঞ্চালনা সমাবেশ অনুষ্টিত হয়।

এতে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় হেফাজতের নায়েবে আমীর আল্লামা নুরুল ইসলাম খান, সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব আল্লামা জুনাইদ আল হাবিব, যুগ্ম মহাসচিব আল্লামা মামুনুল হক, মাওলানা শাহিনুর পাশা চৌধুরী, নাছির উদ্দিন মুনির, সহ আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা শোয়াইব আহমদ, মাওলানা শামসুল ইসলাম, মুফতি শফিকুল আহাদ, মাওলানা শায়খুল ইসলাম, মাওলানা এমদাদুল হক, মুফতি এমদাদুল হক, মাওলানা ছাদিকুর রহমান, মাওলানা বেলাল আহমদ, মুফতি মাহবুবুল হক, মাওলানা আফছর উদ্দিন, মাহমুদুল হাসান সেজু মিয়া, মাওলানা সাইফুর রহমান, মাওলানা মুশতাক আহমদ, মাওলানা আবিদুর রহমান প্রমুখ।

দুপুরের আগেই সমাবেশস্থল দিরাই স্টেডিয়াম মাঠ কানায় কানায় ভরপুর হয়ে উঠে। আগত তৌহিদী জনতা অবস্থান নেন পার্শ্ববর্তী সরকারি কলেজ, বাসস্ট্যান্ড, নতুন বাগবাড়ী, ভরারগাঁও সড়কসহ আশপাশের এলাকায়। 

বেলা সাড়ে ১২ টার দিকে হেফাজতের আমির আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী, যুগ্ম মহাসচিব আল্লামা মামুনুল হকসহ হেফাজতের কেন্দ্রীয় নেতাদের বহনকারী হেলিকপ্টার দিরাই হ্যালিপ্যাড মাঠে অবতরণ করে। এর আগে হেফাজতে ইসলাম দিরাই উপজেলা শাখার আয়োজনে শানে রিসালাত সম্মেলন সোমবার সকাল ১০ টায় শুরু হয়। 

সিলেট ও সুনামগঞ্জ থেকে আগত আলেম উলামাগণের টানা বক্তব্যের মধ্য দিয়ে চলে সম্মেলনের কাজ। বেলা দুই টার পর মঞ্চে একে একে আসেন বাবুনগরী, মামুনুল হকসহ হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় নেতারা।

আরও পড়ুন
সংগঠন সংবাদ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত