ঢাকা, ২১ অক্টোবর, ২০১৯
SylhetNews24.com
শিরোনাম:
ব্রেকিং নিউজ--বরগুনায় রিফাত হত্যা মামলার প্রধান আসামি নয়ন বন্ড র‍্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

বিএনপি আবার ‘আগুন সন্ত্রাস’ শুরু করেছে :প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

প্রকাশিত: ১৫ নভেম্বর ২০১৮  

বিএনপি আবার ‘আগুন সন্ত্রাস’ শুরু করেছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, বিএনপি যেহেতু নির্বাচনে আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, সেহেতু তাদের প্রতি আহ্বান থাকবে, তারা যেন নির্বাচন বানচালের চেষ্টা না করে। তাদের উচিত সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সহায়তা করা।

ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ডের সভার সূচনা বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বিকাল ৩টা ৩৫ মিনিটে শেখ হাসিনা উপস্থিত হন তার রাজনৈতিক কার্যালয়ে। এর পরপরই শুরু হয় সংসদীয় বোর্ডের সভা। আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার কার্যালয়ে আসা উপলক্ষে দুপুর থেকেই আশপাশে জমায়েত হতে থাকেন দলীয় নেতাকর্মীরা। কার্যালয়ের সামনে রাস্তায় দুই পাশে দাঁড়িয়ে স্লোগান দিয়ে তাকে শুভেচ্ছা ও স্বাগত জানান তারা।

প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীও সতর্ক অবস্থানে ছিল এ সময়। বৈঠকের শুরুতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০১৪ সালে আগুন সন্ত্রাস করে বিএনপি নির্বাচন বন্ধ করতে চেয়েছিল, পারেনি। এবারও পারবে না।

আগামীতেও না। কারণ, জনগণ আমাদের সঙ্গে আছে। জনগণ চায়, একটা উৎসবমুখর পরিবেশে নির্বাচন হোক। যে নির্বাচনে তারা ভোট দিয়ে তাদের মনের মতো সরকার গঠন করবে। নির্বাচনে সব দল আসার ঘোষণায় দেশে উৎসবমুখর পরিবেশ তৈরি হয়েছে মন্তব্য করে শেখ হাসিনা বলেন, ঠিক এ সময় নয়া পল্টনের ওই ঘটনা ঘটলো। জনগণ যখন উৎসবমুখর হয় তখন তো বিএনপির খুব খারাপ লাগে। তারা সেই উৎসবে পানি ঢালে। বিএনপির এক নেতা তার মিছিল নিয়ে এলো। তারপর পুলিশের সঙ্গে মারপিট। অনেক পুলিশ সদস্যকে পিটিয়ে আহত করলো, সরকারি তিনটা গাড়িও পোড়ালো। ২০১৪-২০১৫ সালের আদলে গত বুধবার আগুন সন্ত্রাস করে আবার প্রমাণ করলো মানুষকে আগুন দিয়ে পোড়ানো ছাড়া বিএনপি কোনো কাজ করতে পারে না। দলের সংসদীয় বোর্ডের এ বৈঠকে আরো উপস্থিত ছিলেন সাজেদা চৌধুরী, আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, কাজী জাফরুল্লাহ, ওবায়দুল কাদের, ড. আব্দুর রাজ্জাক, কর্নেল (অব.) ফারুক খান, রাশিদুল আলম প্রমুখ।

তোষাখানার উদ্বোধন: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের মর্যাদা সমুন্নত রাখতে এবং দেশকে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত করতে সকলকে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন।
প্রধানমন্ত্রী গতকাল রাজধানীর বিজয় সরণিতে বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘরের পাশে নবনির্মিত তোষাখানার উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির ভাষণে একথা বলেন।
মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের তত্ত্বাবধানে পরিচালিত এই তোষাখানায় দেশের প্রেসিডেন্ট, প্রধানমন্ত্রী, মন্ত্রিপরিষদের সদস্যবৃন্দ এবং কর্মকর্তাগণ যেসব রাষ্ট্রীয় উপহার পাবেন তা সংরক্ষণ করা হবে।

সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব মো. নজিবুর রহমান, সামরিক সচিব মেজর জেনারেল মিয়া মোহাম্মদ জয়নুল আবেদীন, সেনাবাহিনী প্রকৌশল বিভাগের প্রধান মেজর জেনারেল সিদ্দিকুর রহমান সরকার অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন।
বঙ্গবন্ধুর ছোট মেয়ে শেখ রেহানা, মন্ত্রিপরিষদ সদস্যবৃন্দ, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টাবৃন্দ, কূটনৈতিক মিশনের সদস্যবৃন্দ, নৌবাহিনী ও বিমানবাহিনী প্রধানগণ এবং ঊর্ধ্বতন সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তাবৃন্দ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. শফিউল আলম অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন।

আরও পড়ুন
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত