ঢাকা, ১৬ এপ্রিল, ২০২১
SylhetNews24.com
শিরোনাম:
ঢাকাসহ সারাদেশে বিজিবি মোতায়েন, থমথমে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সুবর্ণজয়ন্তীতে ফুল ছিটানোর বদলে রাজপথে রক্ত ঝরলো:মির্জা ফখরুল কাল বিক্ষোভ, রোববার সকাল-সন্ধ্যা হরতাল ডেকেছে হেফাজত সব প্রতিবন্ধকতাকে জয় করে বাংলাদেশ এখন সমৃদ্ধির পথে:প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশকে কেউ কখনও দাবিয়ে রাখতে পারবে না: মোদি হাটহাজারীতে মোদিবিরোধী বিক্ষোভ: পুলিশ-হেফাজত সংঘর্ষ, নিহত ৪ ঢাকায় এসেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী মোদি, লাল গালিচা সংবর্ধনা

বাংলাদেশকে ভয় পাচ্ছে ভারত ? বাংলাদেশের চেয়ে ইংল্যান্ডই হতো তাঁদের সহজ প্রতিপক্ষ !

প্রকাশিত: ১০ মার্চ ২০১৫  

কোয়ার্টার ফাইনালে ভারতের প্রতিপক্ষ হিসেবে কাকে চাইতেন মহেন্দ্র সিং ধোনি? উত্তরটা হয়তো ইংল্যান্ড! অবাক হচ্ছেন?

হারতে হারতে তলানিতে ঠেকা ইংলিশদের এ ভঙ্গুর আত্মবিশ্বাসের সুযোগ যেকোনো অধিনায়কই নিতে চাইবেন। ধোনি তার ব্যতিক্রম নন। তবে ভারত অধিনায়ক কী চাইছেন, না জানা গেলেও সুনীল গাভাস্কার তো বলেই দিলেন, বাংলাদেশের চেয়ে ইংল্যান্ডই হতো তাঁদের সহজ প্রতিপক্ষ! 

অ্যাডিলেডে ইংল্যান্ডকে হারানোর পর ভারতীয় কিংবদন্তি বলেছেন, ‘কোয়ার্টার ফাইনালে ইংল্যান্ডই ভারতের জন্য সহজ প্রতিপক্ষ হতো।’ ইতিহাস, ঐতিহ্য, ঐশ্বর্য থাকলেও ক্রিকেট-ফুটবলে ইংলিশদের অর্জন সামান্যই। গাভাস্কার তাই ইংল্যান্ডকে দিলেন একটা মোক্ষম খোঁচা, ‘ক্রিকেট, ফুটবল দুটোতেই ইংল্যান্ড একটা ‘‘ওভাররেটেড’’ দল।’

আগেও গাভাস্কারের প্রশংসা পেয়েছেন মুশফিকুর রহিম। এ দফাও পেলেন, ‘বাংলাদেশের এ সাফল্যের অন্যতম কারিগর মুশফিকুর রহিমের ধারাবাহিকতা। অভিষেক থেকে এখন পর্যন্ত তার অবিশ্বাস্য উন্নতি। মূলত তার সহযোগিতায় মাহমুদউল্লাহর ব্যাট থেকে এসেছে শতক।’

বাংলাদেশ সমর্থকদের বরাবরই পছন্দ করেন গাভাস্কার। কদিন আগেও প্রশংসা-বন্যায় ভাসিয়েছিলেন বাংলাদেশি সমর্থকদের। এবারও তা-ই, ‘বাংলাদেশি সমর্থকেরা অসাধারণ। উপমহাদেশের সমর্থকদের আলাদা একটা ধরন আছে। তারা খেলায় উত্তেজনা নিয়ে আসে। বহুদিন ধরে বাংলাদেশি সমর্থকেরা সাফল্যের জন্য অপেক্ষা করছে। চূড়ান্তভাবে এখন দলটা এগিয়েছে।’

আট বছর আগে, ‘ভারতকে ধরে দিবানি’ মন্ত্রে পোর্ট অব স্পেনে গর্জে উঠেছিলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। সেদিন ‘নড়াইল এক্সপ্রেসে’র সামনে রীতিমতো টালমাটাল ছিলেন ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা। ৯.৩ ওভারে ৩৮ রানে ৪ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা হয়েছিলেন মাশরাফি।

এ বিশ্বকাপে শেষ আটের যুদ্ধে আবারও বাংলাদেশ-ভারত লড়াই হওয়ার সমূহ সম্ভাবনা। ২০০৭ বিশ্বকাপের স্মৃতি ফিরিয়ে আনতে পারবে মাশরাফির দল?

মানসিকভাবে দারুণ চাঙা বাংলাদেশ অধিনায়ক অবশ্য এখনই ভারতকে নিয়ে ভাবতে চাইছেন না। গতকাল ম্যাচের পর স্টার স্পোর্টসকে বললেন, ‘আমি কেবল একটি স্মৃতিই মনে করতে পারি, ওই ম্যাচে ‘‘ম্যান অব দ্য ম্যাচ’’ হয়েছিলাম। সেটাও অনেক আগের কথা, প্রায় আট বছর তো হবেই। মনে হয় না, ওটা এখন তেমন কোনো সাহায্য করবে।

তবে নির্দিষ্ট দিনে যদি আমরা ভালো খেলতে পারি, ভিন্ন কিছুই হবে। তার আগে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে আমাদের ম্যাচ রয়েছে। এ ম্যাচে আমাদের ভালো খেলতে হবে, যেন ভারতের বিপক্ষে দারুণ আত্মবিশ্বাসী হয়ে মাঠে নামতে পারি।’ সূএ: এনডিটিভি/প্রথমআলো।

আরও পড়ুন
বাণিজ্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত