ঢাকা, ২৪ এপ্রিল, ২০১৯
SylhetNews24.com
শিরোনাম:
ব্রেকিং নিউজ---শ্রীলংকায় ৮টি পৃথক বোমা হামলায় নিহত বেড়ে ২০৭,কারফিউ জারি ‘সরকার বেকায়দায় নেই যে খালেদাকে প্যারোলে মুক্তি দিতে হবে’ আওয়ামী লীগ সরকারের জনপ্রিয়তা বেড়েছে: প্রধানমন্ত্রী সুনামগঞ্জে যুবক খুনের নেপথ্যে নৌ-পথে চাঁদাবাজি, গ্রেপ্তার ৮ নুসরাত হত্যা: আ’লীগ নেতা রুহুল আমিন আটক সিলেটের ওসমানীনগরে বিধবাকে ধর্ষণের অভিযোগে মামাশ্বশুর গ্রেফতার

ফিরে গেলেন বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থীরা,কাল থেকে আবারও আন্দোলন

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৯ মার্চ ২০১৯  

আট দফা দাবিতে অনড় থাকলেও আজকের মতো সড়ক থেকে উঠে যাচ্ছেন বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের (বিইউপি) শিক্ষার্থীরা। আগামীকাল বুধবার (২০ মার্চ) সকাল থেকে আবারও রাস্তায় নামার ঘোষণা দিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) বিকেলে বিইউপির শিক্ষার্থীদের পক্ষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান বিইউপির শিক্ষার্থী প্রতিনিধি মাঈশানুর।

সড়ক থেকে শিক্ষার্থীদেরে উঠে যাওয়ার পর যান চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে বিমানবন্দর থেকে বাড্ডা হয়ে রামপুরা-গুলিস্তান রুটে।

মাঈশানুর বলেন, ‘মেয়র আতিকুল ইসলাস আমাদের আশ্বাস দিয়েছেন আগামীকাল সকালে বসুন্ধরা গেটের সামনে একটি ফুটওভারব্রিজ তৈরি করে দেবেন। দুর্ঘটনায় নিহত আবরারের বাবা ফুটওভারব্রিজটি উদ্বোধন করবেন।’

এছাড়া মাঈশানুর বলেন, ‘নিরাপদ সড়কের দাবিতে চলা এই আন্দোলনকে কেউ রাজনৈতিক আন্দোলন হিসেবে দেখবেন না। শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখেই আজকের মতো আন্দোলন স্থগিত করা হয়েছে। আগামী কাল সকাল থেকে আবারও  আমরা রাস্তায় নামবো।’

ট্রাফিক সপ্তাহ চলার মধ্যেই মঙ্গলবার সকালে সু-প্রভাত পরিবহনের একটি বাসের চাপায় বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের (বিইউপি) ছাত্র নিহতের ঘটনায় সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন করেন শিক্ষার্থীরা। সকাল থেকে এ অবরোধের ফলে বিমানবন্দর থেকে বাড্ডা হয়ে রামপুরা-গুলিস্তান রুটে যানবাহন চলাচল বন্ধ ছিল। নানা প্ল্যাকার্ড নিয়ে তাঁরা এর প্রতিবাদ করছেন।

বাস চাপায় শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার ঘটনা শিক্ষার্থীদের মনে নাড়া দিয়েছে। জেব্রা ক্রসিংয়ের মধ্যে আবরারের রক্তের দাগের দুই পাশে দুইজন শুয়ে প্রতিবাদ করছেন। একজনের পাশে প্ল্যাকার্ডে লেখা 'নিজের সিরিয়ালের অপেক্ষা করুন।' আরেকজনের প্ল্যাকার্ডে লেখা 'আর কত প্রাণ নিবি'।
'উই ওয়ান্ট জাস্টিস', 'আবিরের বুকে রক্ত কেন?', 'কয়লা সড়কে রক্ত কেন?', 'নিরাপদ সড়ক চাই', 'ভাইয়ের বুকে রক্ত কেন?', 'প্রশাসনের প্রহসন মানি না মানব না', 'জেগেছে রে জেগেছে ছাত্রসমাজ জেগেছে', 'সড়ক দুর্ঘটনা বন্ধ হোক'- বসুন্ধরা গেট এলাকা অবস্থান নেওয়া অবরোধকারী বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা এসব স্লোগানের দিচ্ছেন। পাশাপাশি তারা বহন করছেন হাতে লেখা প্লাকার্ডও।

এ ঘটনায় ১২ দফা দাবি জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা। তাদের দাবিগুলোর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে- ১. দশদিনের মধ্যে সুপ্রভাত বাসের চালক, হেলপার ও মালিকের ফাঁসি। ২. সু-প্রভাত ও জাবালে নূরসহ যেসব বাস আজ ও এর আগে দুর্ঘটনা ঘটিয়েছে সেসব বাসের রুট পারমিট বাতিল। ৩. চালক-হেলপারের ডোপটেস্ট করা। ৪. বাসসহ গণপরিবহনের চালক-হেলপারের আইডি কার্ড ভিজিবল করা। ৫. বসুন্ধরা আবাসিক/যমুনা ফিউচার পার্কের সামনে নিহত আবরারের নামে দুই মাসের মধ্যে ফুটওভার ব্রিজ করা।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে রাজধানীতে নর্দ্দা এলাকায় যমুনা ফিউচার পার্কের সামনে সুপ্রভাত পরিবহনের একটি বাসের চাপায় বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী নিহত হয়। নিহত শিক্ষার্থীর নাম আবরার আহমেদ চৌধুরী (২০)। তিনি আবরার বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের (বিইউপি) শিক্ষার্থী ছিলেন।

আরও পড়ুন
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত