ঢাকা, ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
SylhetNews24.com
শিরোনাম:
চীন থেকে ফল আমদানি নিরুৎসাহিত করছে সরকার মুনসীফ আলীর বিরুদ্ধে ৮৪ হাজার কোটি টাকার মানহানি মামলার হুমকি সুরমা মার্কেট থেকে ছিনতাইকারী গ্রেপ্তার সিলেট যুবদলের ১৮ ইউনিটে ৬ সাংগঠনিক কমিটি গঠন জামিন চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করেছেন বেগম খালেদা জিয়া কচুরিপানা নিয়ে গবেষণা করতে বলেছি, খেতে নয়: পরিকল্পনামন্ত্রী ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক চোরাকারবারি নিহত করোনাভাইরাসে উহান হাসপাতাল প্রধানের মৃত্যু রাষ্ট্রপতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ চলে গেলেন ভারতীয় অভিনেতা তাপস পাল নাহিদ সম্পাদিত ‘জয় বাংলা’র মোড়ক উন্মোচন করলেন প্রধানমন্ত্রী একই দিনে চট্টগ্রাম সিটি-যশোর-বগুড়ার ভোট ক্ষমা চে‌য়ে আবেদন করলে বিবেচনা করবে সরকার....স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জগন্নাথপুরে ইউপি চেয়ারম্যান বরখাস্ত সাবেক এমপি রহমত আলী আর নেই রংপুর মেডিক্যালের করোনা ইউনিটে ভর্তি এক চীনা নাগরিক স্ত্রীকে ঘরে তুলেই ব্যাংক কর্মকর্তার আত্মহত্যা বৃষ্টিতে মাঠে গড়ালো না জাহানারাদের প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচ বিশ্বনাথে গাঁজাসহ আটক ১ মৃতের সংখ্যা ১৫২৩, গুরুতর অবস্থা ১১ হাজারৎ বিদায়ী সপ্তাহে ব্লকে ১২০ কোটি টাকার লেনদেন নয়াপল্টনে বিএনপি কার্যালয় ঘিরে রেখেছে পুলিশ ভালোবাসা দিবসে ঘুরতে বের হয়ে দুর্ঘটনায় নববিবাহিত তরুণীর মৃত্যু করোনাভাইরাসে প্রাণহানিতে প্রধানমন্ত্রীর শোক প্যারোলে মুক্তি নিয়ে বিদেশ যেতে চান খালেদা জিয়া! শনিবার সিলেটের যেসব এলাকায় থাকবে না বিদ্যুৎ ভালোবাসা দিবসে সাকিবের আবেগী স্ট্যাটাস বাস ও নসিমনের সংঘর্ষে নিহত ৫ সিলেটে ১৬ কেজি গাঁজাসহ গ্রেপ্তার ১ মন্ত্রিসভায় রদবদল সিলেটে আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের সদস্য গ্রেপ্তার কোটি টাকার পাজেরো পাচ্ছেন ইউএনওরা বিমান বন্দরে ফুলেল ভালোবাসায় সিক্ত বিশ্বকাপজয়ী সিলেটের সাকিব তুরস্কে বাংলাদেশিসহ ১৩৫ অবৈধ অভিবাসী আটক চবির শিক্ষার্থীবাহী বাস খাদে পড়ে আহত ২৫ এতো উৎসব, উচ্ছ্বাসে বিস্ময় আকবরের মুজিববর্ষেই দেশের প্রতিটি ঘরে বিদ্যুৎ পৌছানো হবে....প্রধানমন্ত্রী ইসহাক কাজলের সাংবাদিকতা ও লেখনী স্মরণীয় হয়ে থাকবে ফিটনেসবিহীন কোন গাড়ি চলতে পারবে না....হাইকোর্ট জগন্নাথপুরে ৪ ভাই সহ গ্রেফতার ৫ ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের পাল্টা সংবাদ সম্মেলন ডাকাত সন্দেহে ২ যুবককে পিটিয়ে হত্যা সিলেটে ট্রাক চাপায় রিকশাচালকের মৃত্যু ভাইকে হত্যার পর থানায় হাজির হয়ে হত্যার কথা স্বীকার নিজ দায়িত্বে চীন থেকে ফিরতে হবে....পররাষ্ট্রমন্ত্রী দক্ষতার সঙ্গে টেলিটক পরিচালনা করতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ সিলেট-জগন্নাথপুর সড়কে ২৫ কোটি টাকা ব্যয়ে কাজ শুরু মাটির নিচ থেকে হলেও মাদক কারবারি নির্মূল করা হবে: র‌্যাবের ডিজি সাংবাদিক ইসহাক কাজলের মৃত্যুতে সিলেট প্রেসক্লাবের শোক বসানো হল ২৪তম স্প্যান, পদ্মা সেতুর ৩৬০০ মিটার দৃশ্যমান সিলেটে পুলিশের পৃথক অভিযানে গ্রেপ্তার ৫ করোনা ভাইরাস: মৃতের সংখ্যা ৯০০ ছাড়াল, আক্রান্ত ৪০,৫৫৩ র‌্যাবের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে রোহিঙ্গা নিহত সিলেটে নবাব উদ্দীনের বই নিয়ে লেখক-পাঠক আড্ডা সিলেটের নতুন পিপি নিজাম উদ্দিন সিলেটে স্যামসাং শোরুম থেকে চুরি হওয়া মালামালসহ গ্রেপ্তার ৪ ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে যেন খারাপ কিছু স্পর্শ করতে না পারে পুঁজিবাজার চাঙ্গা করতে আসছে চারটি রাষ্ট্রীয় ব্যাংক....অর্থমন্ত্রী আবু সরকারের জুলুম অত্যাচার থেকে পরিত্রাণ চান ট্রাক শ্রমিকেরা শেরপুরে মাদ্রাসা কেন্দ্র থেকে ভাড়া করা ১২ পরীক্ষার্থী আটক ভোলাগঞ্জ পাথর কোয়ারির রেল স্থাপনা পরিদর্শন করছেন রেলমন্ত্রী কোম্পানীগঞ্জে আ’লীগ নেতাকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা আন্দোলনের নামে নৈরাজ্য করলে দাঁতভাঙা জবাব শেখ হাসিনা বিশ্বের তিনজন সৎ ও পরিশ্রমী রাষ্ট্রনায়কের একজন টিলাগড়ে ছাত্রলীগ কর্মী খুনের ঘটনায় মামলা প্রাইভেটকার চাপায় মুক্তিযোদ্ধা নিহত মুবিজ বর্ষ উদযাপনে সিলেট প্রেসক্লাবের কর্মসূচি গ্রহণ সমাবেশে খালেদা জিয়ার মুক্তি মিলবে না....তথ্যমন্ত্রী শ্রীমঙ্গলে চা বাগানে কিশোরীকে ‘পালাক্রমে ধর্ষণ’, আটক ৩ প্রধানমন্ত্রী নিয়ে ফেসবুকে মিথ্যা পোস্ট, সিলেটে যুবক আটক ভোট কম পড়ার পেছনে দায়ী বিএনপি....তথ্যমন্ত্রী জগন্নাথপুরে গৃহবধূর আত্মহত্যা ব্যাংক ঋণ নারী উদ্যোক্তাদের অধিকার....শিক্ষামন্ত্রী টিলাগড়ে কথা কাটিকাটির জেরে ছাত্রলীগ কর্মী খুন শ্রীমঙ্গলে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১ আ.লীগ নেতাকে গলা কেটে হত্যা: ৩ জনের মৃত্যুদণ্ড চীন থেকে দেশে ফিরলেন হবিগঞ্জের ৬ শিক্ষার্থী ড. মুহাম্মদ ইউনূসের বিরুদ্ধে নতুন ১৭টি দেওয়ানি মামলা দক্ষিণ সুরমায় বাস ও অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষ: নিহত ১ সুরঞ্জিত সেনের তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত রোমে চ্যান্সেরি ভবন উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বছরে ২৬ হাজার কোটি টাকা পাচার করছে বিদেশি কর্মীরা নগরীতে মাদক মামলার ওয়ারেন্টভূক্ত আসামী গ্রেপ্তার নবীগঞ্জে বয়লার বিস্ফোরণে নিহত ১, আহত ৬ তুচ্ছ ঘটনার জেরে বিয়ানীবাজারে ছাত্রলীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১০ ঢাবি থেকে বহিষ্কৃত শিক্ষার্থীদের তালিকা প্রকাশ আপাতত গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির কোনো পরিকল্পনা সরকারের নেই সিলেটে ছিনতাই করে পালানোর সময় ছিনতাইকারী আটক বিয়ে করলেন ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাকির যে ব্যায়াম করে ৪৪ কেজি ওজন কমালেন সারা সিলেটে নিজের বুকে গুলি চালিয়ে পুলিশ সদস্যের আত্মহত্যার চেষ্টা বাঁধ কেটে ডুবিয়ে দেয়া হল কোম্পানীগঞ্জের ২১ কোয়ারি করোনাভাইরাস ঠেকাতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী র‌্যাবের অভিযানে মাদকসহ গ্রেপ্তার ২ সারাদেশে এসএসসি পরীক্ষায় বসেছে সাড়ে ২০ লাখ শিক্ষার্থী অনাগত সন্তানের লিঙ্গ প্রকাশ কেন অবৈধ নয়....হাইকোর্ট সিকৃবির পাশ থেকে অস্ত্রসহ যুবক আটক ভোলাগঞ্জে মাটি চাপায় পাথর শ্রমিক নিহতের ঘটনায় মামলা আকস্মিক অগ্নিকাণ্ড থেকে রক্ষা পেতে বিশেষ মহড়া বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেল সেটাই ছিল লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রী এসএসসি পরীক্ষা ৩ ফেব্রুয়ারি শুরু চীনাদের অন অ্যারাইভাল ভিসা সুবিধা স্থগিত উত্তর-দক্ষিণে কাউন্সিলর হলেন যারা মেয়র হলেন তাপস- আতিক ইভিএমে ভোট: কেউ খুশি, কেউ বিরক্ত! উহান থেকে ফিরলেন ৩১৪ জন বাংলাদেশি রাণীগঞ্জ সেতু ঢালাই কাজের উদ্বোধন করলেন পরিকল্পনামন্ত্রী সিলেটে বইমেলার উদ্বোধন সিলেটে বর্ণমালার মিছিলের মাধ্যমে বরণ করা হলো ভাষার মাস চুরির টাকা ভাগাভাগি নিয়ে খুন ট্রাক্টর ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৩ প্রাথমিকে আরও ২৬ হাজার শিক্ষক নিয়োগ ফেব্রুয়ারিতে: গণশিক্ষা প্রতিম সিলেটে ৯ জঙ্গি আটক দুই সিটি নির্বাচন: প্রচারণায় গিয়ে হামলার শিকার রিজভী হবিগঞ্জে কবর থেকে স্কুলছাত্রীর লাশ উত্তোলন নগরীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৪ ছিনতাইকারী গ্রেপ্তার সাবেক ইউপি সদস্যের গুলিতে এসএসসি পরীক্ষার্থী মৃত্যু ঢাকায় আসছেন মোদি র‍্যাবের পৃথক অভিযান: বিদেশি রিভলভারসহ গ্রেপ্তার ৪ পদ্মা সেতুর ৩৫ চীনা কর্মী বিশেষ নজরদারিতে শাবিপ্রবিতে মাসব্যাপী র‌্যাগিং বিরোধী ক্যাম্পেইন শুরু আর কোন দিন হেলিকপ্টার চড়বেন না সাকিব সীমান্তে অবৈধভাবে গরু আনতে গিয়ে নিহত হলে তার দায় নেবে না সরকার রাজধানীর সিটিং সার্ভিস হচ্ছে চিটিং সার্ভিস....কাদের দিরাই সড়কে পিকআপ চাপায় আমেরিকা প্রবাসীসহ ২জন নিহত মাধবপুরে ২ জনকে হত্যা, দুর্ঘটনার নাটক সাজায় লালমাটিয়ায় এসকে সিনহাকে ‘মাজায় দড়ি’ লাগিয়ে টেনে দেশে আনা হবে:মোজাম্মেল হক নিখুঁত ও স্বচ্ছতার সাথে জনশুমারি করতে হবে:পরিকল্পনামন্ত্রী হাইকোর্টে জামিন চাইলেন প্রথম আলোর সম্পাদক এসএসসি পরীক্ষা ৩ ফেব্রুয়ারি,সংশোধিত রুটিন প্রকাশ ইভটিজিং ও নিরাপত্তা নিশ্চিত হলে বাল্যবিবাহ রোধ ও শিক্ষা বাড়বে মৌলভীবাজারে বাগানে ৪ জনকে কুপিয়ে হত্যার পর ঘাতকের আত্মহত্যা ভারতের নাগরিকত্ব আইন সংশোধনের প্রয়োজন ছিল না:প্রধানমন্ত্রী হাসিনা শিক্ষা বানিজ্যের প্রতিবাদে সিলেট ল কলেজের শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন ‘প্রথম আলো’র সম্পাদকসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা ঢাবি ছাত্রীকে ধর্ষণ: আদালতে মজনুর স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি সিলেটে বিয়ের প্রলোভনে কিশোরীকে ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ১ ‘হাইকোর্টের আদেশ মেনে আন্দোলন থেকে বিরত থাকুন’....কাদের দক্ষিণ সুরমায় ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার ১ খালেদা জিয়ার দণ্ড স্থগিতের বিষয়ে যা বললেন অ্যাটর্নি জেনারেল রিট খারিজ,৩০ জানুয়ারিই হবে ঢাকার দুই সিটি নির্বাচন মুজিববর্ষ উদযাপনে মহাপরিকল্পনা,বছরজুড়ে দেশ-বিদেশে ২৯৮টি অনুষ্ঠান

প্রেমের ফাঁদে পড়ে আইএস-বধূ,অতপর তিন আইএস যোদ্ধার স্ত্রী আর দুই সন্তানের মা

প্রকাশিত: ১ মে ২০১৭  

মেয়েটির নাম ইসলাম মিতাত। বাড়ি মরক্কোয়। কয়েক বছর আগে একটি ডেটিং সাইটের মাধ্যমে পরিচয় হয় আফগান বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নাগরিক আহমেদ খলিলের সঙ্গে।

একসময় তাঁরা বিয়ে করেন। এরপর বদলে যায় মেয়েটির জীবন। স্বামীর হাত ধরে আন্তর্জাতিক জঙ্গিগোষ্ঠী আইএসের আস্তানায় চলে যান মেয়েটি। তিন আইএস যোদ্ধার স্ত্রী আর দুই সন্তানের মা হয়ে সেই আস্তানা থেকে ফিরে এসেছেন তিনি।

এখন আছেন আইএসের বিরুদ্ধে লড়াইরত কুর্দিদের একটি আশ্রয় শিবিরে, সিরিয়ায়। প্রেমের ফাঁদে পড়ে আইএস-বধূ হওয়া এবং সেখান থেকে মুক্তির গল্প তিনি শুনিয়েছেন সিএনএনকে।

প্রেম থেকে বিয়ে সম্পর্কে মিতাত বলেন, মুসলিমা ডট কম ওয়েবসাইটের মাধ্যমে খলিলের সঙ্গে তাঁর পরিচয়। ব্রিটিশ জানার পর খলিলের ব্যাপারে তাঁর আগ্রহ হয়। কারণ, তিনি নিজে ফ্যাশন ডিজাইনার হতে চেয়েছিলেন। ভেবেছিলেন, ব্রিটিশ কাউকে বিয়ে করলে তাঁর স্বপ্নপূরণ সহজ হবে। খলিলের তরফ থেকেও তাঁকে সুন্দর জীবনের স্বপ্ন দেখানো হয়। সব মিলিয়ে দুজনের মধ্যে একটা প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

এর কয়েক মাস পর খলিল তাঁর বোন পরিচয় দিয়ে এক নারীকে নিয়ে মরক্কোয় তাঁদের বাড়ি যান। বিয়ের প্রস্তাব দেন। কতটা সচ্ছল, তা প্রমাণের জন্য তাঁরা ব্যাংক হিসাবও নিয়ে যান। এরপর বিয়েটা হয়ে যায়। বিয়ের পর দুবাই হয়ে আফগানিস্তানের জালালাবাদে যান তাঁরা। সেখানে মাস খানেক থাকার পর নিরাপত্তার কারণে মরক্কোতে ফিরে যান মিতাত।

এরপর খলিল দুবাই থেকে মিতাতকে ফোন করে জানান, তুরস্কে একটি চাকরি মিলেছে তাঁর। তাঁরা তাই সেখানে চলে যাবেন, একসঙ্গে ছুটি কাটাবেন, অনেক ঘোরাঘুরি করবেন। সুন্দর ভবিষ্যতের স্বপ্নে বিভোর হয়ে মিতাত যাত্রা করেন তুরস্কে। সেখানে পৌঁছানোর পর খলিল তাঁকে নিয়ে কোনো রিসোর্ট বা হোটেলে ওঠেননি, সরাসরি চলে যান সিরিয়ার সীমান্তবর্তী তুরস্কের গাজিয়ানতেপ এলাকায়।

মিতাতের ভাষায়, ‘যে বাড়িতে গেলাম, সেটা নারী-পুরুষ আর শিশুতে গিজগিজ করছিল। একটা ঘরে পুরুষেরা, আরেকটা ঘরে নারী ও শিশুরা। আমি খুব হতবাক হয়ে পড়ি। জানতে চাই, আপনারা কোথায় যাচ্ছেন? উত্তরে তাঁরা বলেন যে তাঁরা হিজরতে যাচ্ছেন।

বিষয়টি নিয়ে আমি খলিলের কাছে জানতে চাইলাম। এমন সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করলাম। শুনে সে ভীষণ খেপে গেল। বলল, তুমি আমার স্ত্রী। তোমাকে আমার সব কথা মানতে হবে।’ তিনি ভেবেছিলেন, সীমান্তে তুরস্কের কর্মকর্তাদের বিষয়টি জানিয়ে নিজ দেশে ফেরত যাবেন। তবে সীমান্তে পৌঁছানোর পর তাঁদের বহরকে দেখে গুলি চালানো হয়। প্রাণ বাঁচাতে অন্যদের মতো তিনিও সিরিয়ায় ঢুকে পড়েন।

সিরিয়ার দিনগুলো প্রসঙ্গে মিতাত বলেন, সিরিয়ায় গিয়ে তাঁরা জারাব্লুস শহরের কাছাকাছি একটি আস্তানায় ওঠেন। সেখানে যুক্তরাজ্য, কানাডা, ফ্রান্স, বেলজিয়াম, তিউনিসিয়া, মরক্কো, আলজেরিয়া ও সৌদি আরব থেকে আসা লোকজন ছিল। তিনি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন আর তাঁর স্বামীকে এক মাসের সশস্ত্র প্রশিক্ষণে পাঠানো হয়। প্রশিক্ষণ শেষে খলিলকে যুদ্ধে পাঠায় আইএস।

প্রথম দিনই কোবানিতে লড়াইয়ে মারা যান খলিল। খলিলের যে ভাই আইএসে যোগ দিয়ে পরিবারসহ সিরিয়ায় ছিলেন, তিনিও লড়াইয়ে মারা যান। অথই সাগরে পড়েন তিনি। তবে পালানোর পথ ছিল না। ওই আস্তানাতেই সন্তান আবদুল্লাহর জন্ম হয়।

আইএসের লোকজন আবার বিয়ে করার জন্য চাপ দিতে থাকে মিতাতকে। একসময় প্রথম স্বামী খলিলের বন্ধু জার্মানির আবু তালহা আল-আলামিনের সঙ্গে তাঁর বিয়ে হয়। তালহা তাঁকে আলেপ্পোর মানবিজে নিয়ে যান। তবে তিনি তাঁকে কড়া শাসনে রাখতেন, বাড়ি থেকে বের হতে দিতেন না।

তাঁকে তালাক দেন মিতাত। ছেলেকে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন তিনি, তবে সে চেষ্টা সফল হয়নি। তাঁর ভাষ্য, এ কাজে কেউ সহায়তা করতে চান না। কারণ, ধরা পড়লেই শিরশ্ছেদ করা হয়।

তৃতীয়বারের মতো মিতাতকে বিয়ে দেওয়া হয় আবু আবদুল্লাহ আল-আফগানি নামের এক আইএস যোদ্ধার সঙ্গে। মিতাতের ভাষায়, আবু আবদুল্লাহ ভারতীয়। তাঁর মা অস্ট্রেলিয়ায় থাকেন। সে সূত্রে সম্ভবত তিনি অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক ছিলেন। এই সংসারে মারিয়া নামের একটি মেয়ে আছে। তবে লড়াই করতে গিয়ে মারা যান তৃতীয় স্বামীও। পালানোর সুযোগ চলে আসে মিতাতের কাছে। পাচারকারীদের অর্থ দিয়ে সন্তানদের নিয়ে তিনি কুর্দিদের তল্লাশিচৌকিতে পৌঁছে যান।

দুই বছরের আবদুল্লাহ ও ১০ মাসের মারিয়াকেসহ মিতাতকে সিরিয়ায় আইএসের বিরুদ্ধে লড়াইরত পিপলস প্রোটেকশন ইউনিটের (ওয়াইপিজি) আশ্রয়শিবিরে রাখা হয়। এটি সিরিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চলে অবস্থিত। সন্তানদের নিয়ে মিতাত এখন সেখানেই আছেন। তাদের ফিরে যাওয়ার ব্যাপারে লেবাননের বৈরুতে মরক্কো দূতাবাসের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। তবে দূতাবাস কর্তৃপক্ষ কোনো ধরনের সাড়া দেয়নি।

মিতাতের বাবা আশা করছেন, মরক্কোর রাজা ষষ্ঠ মোহাম্মদ তাঁর মেয়ে ও নাতি-নাতনিদের ফিরিয়ে আনার ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা নেবেন।

তবে দেশে ফেরার চেয়ে সন্তানদের নিরাপত্তা নিয়ে মিতাত বেশি চিন্তিত। তাঁর আশা, প্রথম সন্তানের বাবা ব্রিটিশ হওয়ায় তাঁরা ব্রিটিশ পাসপোর্ট পেতে পারেন। কিংবা তৃতীয় স্বামীর পরিবারের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ায়ও থাকতে পারেন তাঁরা। তবে শেষ পর্যন্ত কোথায় ঠাঁই হবে, তা নিয়ে চিন্তিত মিতাত। বললেন, ‘আমি জানি না আমি কোথায় যাব। আমি কিছু জানি না। আমার জীবনটা ধ্বংস হয়ে গেছে।

আরও পড়ুন
পর্যটন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত