ঢাকা, ২৪ নভেম্বর, ২০২০
SylhetNews24.com
শিরোনাম:
রাসূল (সা.) কে ব্যঙ্গ করে ফ্রান্স মুসলমানদের কলিজায় আগুন লাগিয়েছে সেনাপ্রধানকে প্রধানমন্ত্রীর ‘সেনাবাহিনী পদক’ প্রদান প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ: দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় আমরা দৃঢ় সংকল্পবদ্ধ সিলেট নগরীর পাঠানটুলায় বাসা থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার, তরুণী আটক

নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে হাজী সেলিমের ছেলের মারধর,থানায় জিডি

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৬ অক্টোবর ২০২০  

পুরান ঢাকার বহুল আলোচিত সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের গাড়ী থেকে বের হয়ে নৌবাহিনীর কর্মকতাকে মারধরের ঘটনায় ধানমণ্ডি থানায় জিডি করেন ভুক্তভোগী নৌবাহিনীর কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট ওয়াসিম। এসময় নৌবাহিনীর কয়েকজন কর্মকর্তা থানায় উপস্থিত ছিলেন। 

প্রসঙ্গত: রোববার (২৫ অক্টোবর) সন্ধ্যার পর ধানমন্ডির কলাবাগান ক্রসিংয়ের কাছে এ ঘটনা ঘটে। ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের গাড়ি রাজধানীর ধানমণ্ডিতে নৌবাহিনীর এক কর্মকর্তার মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দেয়। 

ধাক্কা দেওয়ার পরও সাংসদের গাড়িতে মোটরসাইকেলের ঘষা লেগেছে— এমন অজুহাত দেখিয়ে সাংসদের গাড়ি থেকে বেরিয়ে কয়েকজন লোক নৌবাহিনীর ওই কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট ওয়াসিমকে প্রচণ্ড মারধর করেছেন।

এতে তার দাঁত ভেঙে গেছে। এ সময় বাইকের পেছনে থাকা নৌবাহিনীর ওই কর্মকর্তার স্ত্রীর গায়েও তারা হাত দেয়।

ওই গাড়িটি ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের। এর নম্বর ঢাকা মেট্টো– ঘ ১১-৫৭৩৬। তবে ঘটনার সময় তিনি ওই গাড়িতে ছিলেন না। সেখানে ছিলেন হাজী সেলিমের ছেলে ও নিরাপত্তারক্ষী। 

তারাই গাড়ি থেকে নেমে নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে মারধর করেছেন বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন। এ সময় লেফটেন্যান্ট ওয়াসিম আত্মরক্ষার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন।

ঘটনার সময়ে এক পথচারীর ধারণ করা ভিডিওতে দেখা যায়, মারধরে আহত নৌবাহিনীর কর্মকর্তা নিজেকে লেফটেন্যান্ট ওয়াসিম বলে পরিচয় দেন। 

তিনি বলেন, বই কিনে স্ত্রীসহ মোটরবাইকে ফিরছিলেন। ওই গাড়িটি তার মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দেয়। তিনি তখনই মোটরসাইকেল থামান এবং নিজের পরিচয় দেন। কিন্তু কোনো কথা না শুনেই গাড়ি থেকে নেমে দুই ব্যক্তি তাকে মারধর শুরু করেন।
লেফটেন্যান্ট ওয়াসিম তার স্ত্রীর গায়েও ওই লোকগুলো হাত দিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, ঘটনাস্থলে লোকজন জমে গেলে সাংসদের গাড়িটি ফেলেই ভেতরে থাকা লোকগুলো সরে যায়। পরে পুলিশ এসে গাড়ি ও মোটরসাইকেলটি ধানমণ্ডি থানায় নিয়ে যায়।

আরও পড়ুন
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত