ঢাকা, ১২ আগস্ট, ২০২০
SylhetNews24.com
শিরোনাম:
সব মানুষের মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক, ১১ নির্দেশনা পবিত্র হজ ৩০ জুলাই চুক্তিতে থাকা বিতর্কিত স্বাস্থ্যের ডিজি ডা. আবুল কালামের পদত্যাগ ১ আগস্ট পবিত্র ঈদুল আজহা

জনকল্যানে পৈতৃক ভিটা দান: প্রশংসায় ভাসছেন এম এ মান্নান

খালেদ আহমদ

প্রকাশিত: ১০ জুলাই ২০২০  

জনকল্যানে নিজের দীর্ঘদিনের ঐতিহ্যবাহী বাড়ী 'হিজল'সহ পৈতৃক ভিটার পুরো জমি দান করে প্রশংসায় ভাসছেন সাবেক জনবান্ধব আমলা ও বর্তমান পরিকল্পনামন্ত্রী, সুনামগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য এম এ মান্নান। দক্ষিন সুনামগজ্ঞের ডুংরিয়া গ্রামের ওই পৈতৃক ভিটায় প্রায় দেড় কেদার জমি।

ভাটির দেশ সুনামগঞ্জের হাওরাঞ্চলের অসহায়, দুঃস্থ, বিধবা ও দরিদ্র নারীদের কল্যাণে নিজের পৈতৃক ভিটার ৪১ শতক জমি সরকারের নামে দান করেছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান এমপি।সম্প্রতি দিনে এই দানপত্র দলিল সম্পন্ন করেন। 

বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) দুপুরে সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদের কাছে এই দলিল হস্তান্তর করেন পরিকল্পনামন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী হাসনাত হোসেন।

দান করা জমিতে মন্ত্রীর মায়ের নামে ‘আজিজুননেসা টেক্সটাইল ভোকেশনাল ইনস্টিটিউট’ তৈরি হবে। সেখান থেকে হাওরাঞ্চলের নারীরা বিভিন্ন প্রশিক্ষণ নিয়ে নিজেরা স্বাবলম্বী হতে পারবেন।

দু'সন্তানের জনক  পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নানের একমাত্র পুত্র লন্ডনে একটি ব্যাংকের সিনিয়র কর্মকর্তা, আর চিকিৎসক কন্যা কম্পিউটার ইন্জিনিয়ার  স্বামীর সাখে আমেরিকা প্রবাসী। তাঁর স্ত্রী অবসর প্রাপ্ত কলেজ অধ্যাপক। পরিবারের সম্মতিতেই তিনি জনকল্যানে বাড়িটি দান করে দিয়েছেন।


দলিল গ্রহন করে জেলা প্রশাসক মো. আব্দুল আহাদ বলেন, মাননীয় পরিকল্পনা মন্ত্রী মহোদয় একজন সজ্জন মানুষ। তিনি তাঁর পৈত্রিক ভিটা  মায়ের নামে ‘আজিজুননেসা টেক্সটাইল ভোকেশনাল ইনস্টিটিউট’ করার জন্য দান করে  দিয়ে বিরল দৃষ্টান্ত স্হাপন করেছেন। আমরা আজ আনুষ্ঠনিকভাবে দলিলটি গ্রহন করেছি। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয়ে তা পাঠিয়ে দেব।

এদিকে, বর্তমান এই সময়ে হাওরাঞ্চলের নারীদের জীবনমান উন্নয়ন ও  স্বাবলম্বী করে গড়ে তোলার উদ্দেশ্যে নিজের পৈতৃক ভিটার পুরো ৪১ শতক মূল্যমান জমি দান করায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন মহলের পক্ষ থেকে অভিন্দন ও প্রশংসায় ভাসছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান এমপি। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন- দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান সুজন, ছাত্রলীগ নেতা কামরুল ইসলাম শিপন, মঈনুল হোসেন প্রমুখ।

মন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী হাসনাত হোসেন জানান, আজিজুননেসা টেক্সটাইল ভোকেশনাল ইনস্টিটিউটে অসহায়, দুঃস্থ, বিধবা ও দরিদ্র নারীরা কম্পিউটার, বুটিক, সেলাইসহ সব ধরনের প্রশিক্ষণ নিতে পারবেন। সেই চিন্তা থেকেই বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সচিবের নামে এই জমি রেজিস্ট্রি করে দিয়েছেন পরিকল্পনা মন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি।

আরও পড়ুন
এক্সক্লুসিভ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত