ঢাকা, ২৮ অক্টোবর, ২০২০
SylhetNews24.com
শিরোনাম:
সারাদেশে প্রাথমিক শিক্ষকদের বদলি বন্ধ ১ নভেম্বর থেকে ওমরাহ করতে পারবেন বাংলাদেশীসহ বিদেশিরা সেনাপ্রধানের ফেসবুকে কোনো অ্যাকাউন্ট নেই: আইএসপিআর নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে হাজী সেলিমের ছেলের মারধর,থানায় জিডি বিচার না হওয়া পর্যন্ত সিলেটবাসী রায়হানের পরিবারের পাশে থাকবে-আরিফ ‘আমার ছেলে কবরে,খুনি কেন বাহিরে’,অনশনকে ঘিরে হঠাৎ তীব্র আন্দোলন জাতির পিতা নিজেও সাংবাদিকতার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন: প্রধানমন্ত্রী

‘চল যাই যুদ্ধে, ধর্ষণকারীর বিরুদ্ধে’

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮ অক্টোবর ২০২০  

নিপীড়ক ধর্ষকদের প্রতিহত করতে নারীরাই রুখে দাঁড়াবার দৃশ্য দেখিয়ে মঞ্চস্থ হলো পথনাটক ‘চল যাই যুদ্ধে, ধর্ষণকারীর বিরুদ্ধে’। 

জেলার মোহনগঞ্জ উপজেলার পৌর এলাকায় শহীদ মিনারে বুধবার (০৭ অক্টোবর) বিকেল সাড়ে চারটায় এমন প্রতিবাদী কর্মসূচি গ্রহণ করেছে ‘সূর্যমূখী থিয়েটার’ নামে একটি সাংস্কৃতিক সংগঠন।

এদিকে নাটক দেখতে ভিড় জমান নারী শিশুসহ নানা বয়সের পথচারীরা। আবার খবর পেয়ে তাদের অনেকেই এসেছেন দূর দূরান্ত থেকে। 

ধর্ষণের বিরুদ্ধে জেগে ওঠা সারা দেশের মতো নেত্রকোনার জেলা উপজেলা সহ বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন লাগাতার কর্মসূচি পালন করে আসছে গত কদিন ধরেই। 

আর এ কর্মসূচির মধ্য দিয়েই এবার ধর্ষকমুক্ত দেশ গড়ার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন তারা। সে জন্যই জাগাতে হবে প্রতিটি নারীকে। আর এ উদ্যোগ নিয়েছে এই সাংস্কৃতিক সংগঠনের ক্ষুদে শিল্পীরা। 

সাংস্কৃতিক সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা হাবিবুর রহমান হানিফের পরিচালনায় থিয়েটারের নাট্যকর্মীরা পরিবেশন করেন এই পথ নাটক। এছাড়ারাও তারা একই স্থানে মানববন্ধন করে সাংস্কৃতিক প্রতিবাদ ও মশাল মিছিল করে। 

প্রতিবাদ সমাবেশে থিয়েটারের পরিচালক নাট্যকর্মী হাবিবুর রহমান হানিফের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, শিক্ষক, কবি ও লেখক রইস মনরম, সাংবাদিক আলপনা বেগম, সাইফুল আরিফ জুয়েল, স্বাবলম্বীর হারুন অর রশিদ, নারী প্রগতি সংঘের মুক্তি মহানায়ক প্রমুখ। 

সংগঠনের পরিচালক হাবিবুর রহমান হানিফের পরিচালনায় এতে অভিনয় করেন সাঈদা আক্তার সাদিয়া, সাব্বির, রাব্বুল ইসলাম, আরিফুল ইসলাম  পিয়াস, সোহান, সাওদিয়া তারেক, শাম্মি খান পাঠান, মারুফ, ফুটন্ত, রাকিব প্রমুখ। 

নাটক দেখতে আসা মধ্য বয়সী এক নারী বলেন, ‘৫ কিলোমিটার পথ হেঁটে তিনি এসেছেন। তিনি বলেন, আমরা আগে এমন দিন দেখছি না। কিন্তু অহন আমরার মেয়ে ছেলেরারে চলতে দেয় না। এরারে মারনই দরকার। আমি এই নাটক দেইক্ষা খুব খুশি হইছি।’

আরও পড়ুন
সাহিত্য-সংস্কৃতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত