ঢাকা, ২৫ জুন, ২০১৯
SylhetNews24.com
শিরোনাম:
খালেদা জিয়ার শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে ইইউ প্রতিনিধিদলের উদ্বেগ পাকিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট আসিফ জারদারি গ্রেফতার ৪০ লাখ ঘুষ: দুদক পরিচালক এনামুল বাসির সাময়িক বরখাস্ত ওসি মোয়াজ্জেমকে খুঁজেই পাচ্ছে না পুলিশ!

গুঞ্জনই সত্যি হলো, ছাত্রলীগের নেতৃত্বে সোহাগ-জাকির

প্রকাশিত: ২৬ জুলাই ২০১৫  

ছাত্রলীগের ২৮তম কাউন্সিলে নেতৃত্ব নির্বাচনে ভোট শুরু হওয়ার পর থেকেই যে গুঞ্জন ছিল শেষ পর্যন্ত তা-ই সত্যি করে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন সাইফুর রহমান সোহাগ এবং সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন জাকির হোসাইন।

শনিবার দিনভর গুঞ্জন ছিল ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি লিয়াকত শিকদার সিন্ডিকেটের পছন্দ অনুযায়ী বাংলাদেশের প্রাচীনতম এই সংগঠনটির নেতৃত্বে আসছেন সোহাগ-জাকির।

শনিবার শুরু হওয়া দুদিনব্যাপী সম্মেলনের শেষ দিন রোববার বেলা ১১টায় শুরু হয় ভোটগ্রহণ। বিকেল ৫টা ৪০ মিনিটে তা শেষ হয়।

৩ হাজার ১শ ৩৮টি ভোটের মধ্যে নেতৃত্ব নির্বাচনে ভোট পড়ে ২ হাজার ৮শ ১৯টি।

সংগঠনের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী দুই বছর পর সম্মেলন হওয়ার কথা থাকলেও এ সম্মেলন হলো চার বছর পর এমন এক সময়ে, যখন দুবার সরকারবিরোধী আন্দোলন করে পুরোপুরি ব্যর্থ হয়ে বেশ কোণঠাসা অবস্থানে রয়েছে বিএনপি।

তবে নির্বাচন না সমঝোতার ভিত্তিতে নতুন নেতৃত্ব পাবে ছাত্রলীগ তা নিয়ে কিছুটা ধোয়াশা ছিল। সম্মেলন উদ্বোধন করেই আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাফ জানিয়ে দেন- নির্বাচনের মাধ্যমেই নতুন নেতৃত্ব আসছে ছাত্রলীগে।

সে অনুযায়ীই রোববার ভোটগ্রহণ শুরু হয়। এতে নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দায়িত্বপালন করেন- মিতুন কুণ্ডু, শেখ রাসেল ও মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক।

রোববার বিকেলে ভোটগ্রহণ শেষ হওয়ার পর সদ্যবিদায়ী সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকী নাজমুল আলম বলেন, ‘ছাত্রলীগকে আমরা যেভাবে নেতৃত্ব দিয়েছি আগামী দিনেও এই প্রক্রিয়া থাকলে ছাত্রলীগ সব আন্দোলনে সফল হবে।’

নিজের ও বদিউজ্জামান সোহাগের নেতৃত্বের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেছিলেন, ‘আমরা ছিলাম দুই ভাইয়ের মতো। কোনোদিন গ্রুপ হয়নি। মিডিয়া অনেক কিছু লিখেছে অনেক সময়। কিন্তু লিখতে পারেনি সোহাগ গ্রুপ, নাজমুল গ্রুপ।’

আরও পড়ুন
ঐতিহ্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত