ঢাকা, ০১ আগস্ট, ২০২১
SylhetNews24.com
শিরোনাম:
দক্ষিণ সুরমায় কিশোরকে অপহরণকালে আটক ১৬ জনকে পুলিশে সোপর্দ বিমান বিধ্বস্ত হয়ে বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় `টারজান` স্ত্রীসহ নিহত মন্ত্রিসভার বৈঠকে স্থানীয় প্রশাসনকে লকডাউনের ক্ষমতা দেয়া হয়েছে সানলাইফ ইন্স্যুরেন্সের প্রতারণা স্বাস্থ্যমন্ত্রীর বোনের বিরুদ্ধে দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর দেশে এলো ফাইজারের ১ লাখ ৬০০ ডোজ টিকা

কোম্পানীগঞ্জে কিশোর হৃদয় খুন, দু`মাস পর ৩ ঘাতক গ্রেফতার 

স্টাফ রিপোর্টার

প্রকাশিত: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

সিলেটের কোম্পানীগঞ্জের কিশোর হৃদয় হত্যার ঘটনায় মূলহোতাসহ ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

বৃহস্পতিবার দুপুরে হত্যা মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে তাদেরকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। তারা হলো, কোম্পানীগঞ্জের টুকেরগাঁও গ্রামের মৃত হেবজো মিয়ার ছেলে সাদ্দাম হোসেন, নয়াপাঙ্গের গ্রামের আব্দুস ছত্তারের পুত্র মিজান আহমদ ও টুকেরগাঁওয়ের বাছির মিয়ার পুত্র সুমন মিয়া।

ওদের মধ্যে সাদ্দামকে প্রযুক্তি সহায়তায় ব্রাহ্মণবাড়ীয়ার নবীনগর থেকে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এরপর তার তথ্যের ভিত্তিতে অপর ২জনকে গ্রেফতার করা হয়।

বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ের এসব তথ্য জানান এসপি মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন।

তিনি বলেন, গত ৩১ জানুয়ারী কোম্পানীগঞ্জ থানাধীন নয়াগাঙ্গেরপাড় ধলাই নদীর পাড় থেকে হৃদয় মিয়া নামের এক কিশোরের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। হত্যার রহস্য উদঘাটনের জন্য পুলিশের একাধিক টিম কাজ শুরু করে। একপর্যায়ে নিহতের বন্ধু নয়ন ও রুহুল আমিনকে থানায় এনে দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এ সময় তারা পুলিশকে জানায় সফর নামের তাদের এক বন্ধু সাথে কিশোর হৃদয় কয়েকদিন ঘুরাফেরা করে।

এসপি ফরিদ আরো জানান, নিহত হৃদয়ের আরো এক বন্ধু সাদ্দাম হোসেনের নাম-ঠিকানা সংগ্রহ করে গত ১ ফেব্রুয়ারী অভিযান চালালে তাকে পাওয়া পায়নি। পুলিশের কাছে তথ্য আসে সে ঘটনার পর পরই আত্মগোপনে চলে যায়। বুধবার তথ্য-প্রযুক্তির সহায়তায় ব্রাহ্মনবাড়ীয়া থেকে সাদ্দামকে গ্রেফতার করে পুলিশ। 
প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সাদ্দাম আরো ২ জনের সংশ্লিষ্টতার কথা জানালে পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাদেরকেও গ্রেফতার করা হয়।

আরও পড়ুন
এক্সক্লুসিভ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত