ঢাকা, ১১ জুলাই, ২০২০
SylhetNews24.com
শিরোনাম:
দেশে করোনা মোকাবিলার পরিস্থিতি দেখে হতাশ চীনা বিশেষজ্ঞ দল করোনার মধ্যেও উন্নয়নের ধারা বজায় রাখতে প্রচেষ্টা চালাচ্ছে সরকার সিলেট বিভাগে নতুন আরও ১৪২ জনের করোনা শনাক্ত,সিলেটেই ৭৮ সিলেটে করোনা রোগী বাড়ছেই, হাসপাতালে `ঠাঁই নাই, ঠাঁই নাই` অবস্হা

করোনা মুক্ত হয়ে হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরলেন কাউন্সিলর আজাদ

বিশেষ প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ৩ জুন ২০২০  

করোনা মুক্ত হয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ২০নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদ। বুধবার দুপুর ৩ টার দিকে শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র নিয়ে বাসায় যান তিনি।

এসময় কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদ বলেন, আমার ধারণা দেশেরব করোনা হাসপাতালগুলোর মধ্যে সবচেয়ে ভালো চিকিৎসা হচ্ছে সিলেটের শহীদ ডা. শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে। এই হাসপাতালের চিকিৎসক এবং নার্সরা সার্বক্ষণিক রোগীদের সেবা দিচ্ছেন। আমি চিকিৎসাধীন থাকাকালীন প্রতিনিয়ত আমার খোজখবর রেখেছেন। তাদের এই সেবায়ই আমি সুস্থ হয়ে ফিরে এসেছি। তাদের কাছে আমি কৃতজ্ঞ।

জানা গেছে, কাউন্সিলর আজাদ করোনাক্রান্ত বলে গত ২৪ মে ওসমানীর ল্যাবে নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত হন। এরপর থেকে তিনি বাসায় আইসোলেশনে ছিলেন। তবে গত ২৮ মে শ্বাসকষ্ট বেড়ে যাওয়ায় আজাদকে শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে কেবিনে রেখে তাকে অক্সিজেন সরবরাহ করা হয়।

সর্বশেষ গতকাল মঙ্গলবার তৃতীয়বারের মতো তার নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এই পরীক্ষায়ও তার নেগেটিভ আসে। তাই বুধবার তাকে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, সিসিকের টানা চারবারের কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদ। মহানগর আওয়ামী লীগের আগের কমিটির শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক তিনি। করোনাকালে ব্যাপক ত্রাণ তৎপরতার মাধ্যমে সর্বমহলে প্রশংসিত হন আজাদ। তার স্ত্রী যুক্তরাজ্যের ওয়েস্টহ্যাম্পস্টেড’র কেমডেন কাউন্সিলর নাজমা রহমান। স্ত্রীকে সাথে নিয়ে করোনার শুরু থেকে মানুষের জন্য কাজ করছেন আজাদ। গভীর রাতে খাদ্যসহায়তা নিয়ে অসহায় মানুষের দরজায় ছুটে গেছেন তারা। 

হাসপাতাল ত্যাগকালে হাততালি দিয়ে ওসমানী হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইউনূছসহ অন্যান্য চিকিৎসক, কর্মকর্তারা তাদের অভিনন্দন জানান। এসময় পরিচালক কাউন্সিলা আজাদের মানবিক কর্মকান্ডের প্রশংসা করেন।

আরও পড়ুন
এক্সক্লুসিভ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত