ঢাকা, ১২ জুলাই, ২০২০
SylhetNews24.com
শিরোনাম:
দেশে করোনা মোকাবিলার পরিস্থিতি দেখে হতাশ চীনা বিশেষজ্ঞ দল করোনার মধ্যেও উন্নয়নের ধারা বজায় রাখতে প্রচেষ্টা চালাচ্ছে সরকার সিলেট বিভাগে নতুন আরও ১৪২ জনের করোনা শনাক্ত,সিলেটেই ৭৮ সিলেটে করোনা রোগী বাড়ছেই, হাসপাতালে `ঠাঁই নাই, ঠাঁই নাই` অবস্হা

করোনা আক্রান্ত যমুনার গ্রুপের চেয়ারম্যান হাসপাতালে চিকিৎসাধীন

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ২০ জুন ২০২০  

দেশের অন্যতম শীর্ষ ব্যবসায়ী গ্রুপ যমুনার গ্রুপের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম বাবুল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। বর্তমানে তিনি এভার কেয়ার (সাবেক অ্যাপোলো) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

বৃহস্পতিবার রাতে নুরুল ইসলাম বাবুল নিজেই গণমাধ্যমকে এই তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, এখন তার শারীরিক অবস্থা উন্নতির দিকে।

জানা গেছে, গত রবিবার অফিস করার সময় নুরুল ইসলাম বাবুল হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন। তারপর তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সোমবার বাবুলের করোনাভাইরাস পরীক্ষার ফল ‘পজিটিভ’ আসে।
তবে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তির আগে দুবার তার করোনা টেস্ট করা হয়েছিল। তবে দুবারই ফলাফল নেগেটিভ এসেছিল।

জানা গেছে, বাবুলের এক মেয়ে ও মেয়ের স্বামীও অসুস্থ। তবে তারা বাসায় থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। তাদের বাসার ৬/৭ জন কর্মী অসুস্থ হওয়ায় তাদের ছুটিতে পাঠানো হয়েছে।

যমুনা গ্রুপ বাংলাদেশে বৃহৎ শিল্প গ্রুপগুলোর একটি। বস্ত্র, রাসায়নিক, চামড়া, মোটর সাইকেল, ইলেকট্রনিক্স, বেভারেজ, টয়লেট্রিজ উৎপাদন ও বাজারজাত করে এই গ্রুপটি। এছাড়া যুগান্তর ও যমুনা টেলিভিশনের মালিকানাও রয়েছে এই গ্রুপের। নুরুল ইসলাম বাবুলের স্ত্রী সালমা ইসলাম সংসদ সদস্য।

এর আগে অ্যাপেক্স গ্রুপের চেয়ারম্যান সৈয়দ মঞ্জুর এলাহী, এনভয় গ্রুপের চেয়ারম্যান কুতুব উদ্দিন আহমেদ, এস আলম গ্রুপের ভাইস-চেয়ারম্যান আব্দুস সামাদ লাবুসহ গ্রুপের পাঁচ পরিচালক, বীকন গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবাদুল হক চৌধুরী এমপি, মোস্তফা গ্রুপের চেয়ারম্যান হেফজাতুর রহমান, হা-মীম গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এ কে আজাদসহ বেশ কয়েকজন উদ্যোক্তা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এদের সবাই সুস্থ হয়ে উঠেছেন। শুধু এস আলম গ্রুপের পরিচালক মোরশেদুল আলম মারা গেছেন।

আরও পড়ুন
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত