ঢাকা, ২০ মার্চ, ২০১৯
SylhetNews24.com
শিরোনাম:
ফলোআপ: অভাবের যাতনা ও ক্ষোভে বীর মুক্তিযোদ্ধা জলফে আলীর আত্বহত্যা! রাঙ্গামাটিতে ভোট শেষে ফেরার পথে গুলি:নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৮ জন জিয়া ভোটের রাজনীতি ধ্বংস করেছেন: প্রধানমন্ত্রী নৌকা আর বিদ্রোহী মিলে সিলেট জেলার ১২ উপজেলাই আ`লীগের নিউজিল্যান্ডেই দাফন সিলেটের হোসনে আরা ও ড. সামাদের মসজিদে হামলাকারীকে আটকানো পাকিস্তানি ‘নায়কের’ মৃত্যু সুনামগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে মুক্তিযোদ্ধার রহস্যজনক মৃত্যু খাদ্যমন্ত্রীর জামাইয়ের রহস্যজনক মৃত্যু, পরিবারের দাবি ‘হত্যা’ ফের ডাকসু পুনর্নির্বাচনের দাবি জানালেন ভিপি নুর বিশ্বব্যাপী প্রশংসায় ভাসছেন সেই কিশোর, আরও ডিম কেনার তহবিল গঠন

এমপি গোলাম দস্তগীরের কার্যালয়ে গুলিবিদ্ধ হয়েছেন ছাত্রলীগের নেতা

প্রকাশিত: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৭  

রাজধানীর পুরানা পল্টন এলাকায় নারায়ণগঞ্জ-১ (রূপগঞ্জ) আসনের সাংসদ গোলাম দস্তগীর গাজীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে ছাত্রলীগের এক নেতা গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।

তাঁকে সোমবার সন্ধ্যায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

 

গুলিবিদ্ধ ছাত্রলীগ নেতার নাম মোশাররফ হোসেন। তিনি রূপগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সম্পাদক। গোলাম দস্তগীর গাজী ওই এলাকারই সাংসদ। তিনি ঘটনার সময় সাংসদ কার্যালয়ে ছিলেন না বলে জানিয়েছে পুলিশ। এ ঘটনায় পল্টন থানা-পুলিশ সাংসদের এপিএস কামরুজ্জামানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পুলিশের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা প্রথম আলোকে বলেন, মাসুদ রানা নামে উপজেলা ছাত্রলীগের আরেক নেতা মোশাররফকে গুলি করেছেন। একটি ঝগড়ার ঘটনা মীমাংসার জন্য তাঁরা সাংসদের এপিএস কামরুজ্জামানের কাছে এসেছিলেন। তখনই কথা-কাটাকাটির একপর্যায়ে এ ঘটনা ঘটে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক গাজী গ্রুপের একজন কর্মকর্তা প্রথম আলোকে বলেন, রূপগঞ্জের স্থানীয় নেতা-কর্মীরা প্রায়ই এখানে আসেন ও বিভিন্ন রাজনৈতিক বিষয় নিয়ে বৈঠক করেন। বিকেলে তাঁরা ১০-১৫ জন এসেছিলেন। এরপর তাঁদের মধ্যে কী নিয়ে কথা-কাটাকাটি হয়েছে তা তিনি জানেন না। কথা-কাটাকাটির একপর্যায়ে একজন মোশাররফের পেটে গুলি করেন বলে তিনি ঘটনার পরে জেনেছেন।

ঘটনাস্থলে র‍্যাব-৩-এর উপ-অধিনায়ক মেজর মেহেদী হাসান বলেন, গুলিটি মোশাররফের পেটের বাঁ দিকে ঢুকে ডান দিকে আটকে ছিল। কী নিয়ে ঘটনা ঘটেছে জানার চেষ্টা চলছে। ঘটনাস্থলে সাংসদ ছিলেন না। এ ঘটনায় কামরুজ্জামান নামের একজনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পল্টন থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তিনি নিজেকে সাংসদের এপিএস বলে পরিচয় দিয়েছেন।

আরও পড়ুন
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত