ঢাকা, ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯
SylhetNews24.com
শিরোনাম:
২৫ জনকে আসামি করে আবরার হত্যার চার্জশিট:অভিযুক্তরা উচ্ছৃঙ্খল ছিল

আব্দুস সামাদ আজাদ আজীবন বাঙালী জাতির মুক্তির কাজ করেছেন:কামরান

বিশেষ প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ৩ মে ২০১৯  

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য, সিলেট মহানগর সভাপতি সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান বলেছেন, আব্দুস সামাদ আজাদ ছিলেন মুক্তিযুদ্ধের প্রথম সারির যোদ্ধা।

স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম পররাষ্ট্রমন্ত্রী, আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও গণতান্ত্রিক প্রগতিশীল আন্দোলন ও মৌলবাদ বিরোধী সংগ্রামের অন্যতম জাতীয় নেতা। আব্দুস সামাদ আজাদ বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ, বিশ্বস্ত ও নির্ভরশীল সহকর্মী হিসেবে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একজন প্রথম সারির নেতা হিসেবে কাজ করেছেন।

তিনি আরো বলেন, জননেতা আব্দুস সামাদ আজাদ জীবনে কখনো আপস করেননি। আজীবন ব্যক্তিস্বার্থের উর্ধ্বে উঠে থেকে বাঙালী জাতির মুক্তির জন্য কাজ করে গেছেন। হাল ধরেছেন দেশ ও জাতির প্রতিটি সংকটময় মুহুর্তে। বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ট সহচর হিসেবে আজীবন সংগ্রামী এই নেতা বেঁচে থাকলে দেশ আরো এগিয়ে যেতো।

শুক্রবার সিলেট জেলা পরিষদ মিলনায়তনে আব্দুস সামাদ আজাদ স্মৃতি পরিষদের উদ্যোগে আব্দুস সামাদ আজাদ এর ১৪তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে অয়োজিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে সভাপতির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক ও আব্দুস সামাদ আজাদ স্মৃতি পরিষদের সদস্য এড. রনজিত সরকারের পরিচালনায় স্মরণ সভায় বক্তব্য রাখেন, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক সংসদ সদস্য শফিকুর রহমান চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এড. নিজাম উদ্দিন, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফয়জুল আনোয়ার আলাওর, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক অধ্যক্ষ সুজাত আলী রফিক, এড. শাহ মোশাহিদ আলী, মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ.টি.এম হাসান জেবুল

,জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক সায়ফুল আলম রুহেল, আজহার উদ্দিন জাহাঙ্গীর, সাংবাদিক আল আজাদ, আহমেদ নুর, ইঞ্জি: সিরাজুল ইসলাম, দিবাকর ধর রাম, বালাগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান মোস্তাকুর রহমান মফুর, আব্দাল মিয়া, নুরুল আমিন, জামাল আহমদ চৌধুরী, এড. এ. কে. এম. সামিউল ইসলাম আলম, বুরহান উদ্দিন আহমদ, ডা. নাজরা চৌধুরী, মোক্তার খান, নিধুভূষণ দাস, বেলাল খান, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক দেবাংশু দাস মিঠু, সাবেক ছাত্রনেতা শামসুল ইসলাম মিলন, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, হিরক দে পাপলু, মিনার আহমদ, এনামুল মনির, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আব্দুস সামাদ, কামরুল ইসলাম, গোলাম হাসান চৌধুরী সাজন, সুব্রত সামন্ত সরকার, সঞ্জয় চৌধুরী, বদরুল ইসলাম, অপু তালুকদার, ফাহাতদ মোহাম্মদ রুবেল, সায়ফুল আলম, নুরুল তালুকদার, সুমন তালুকদার প্রমুখ।

মোনাজাত পরিচালনা করেন কাষ্টঘর জামে মসজিদের পেশ ইমাম হাফিজ মাওলানা শাহ আলম এবং অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন সরকারি কলেজ ছাত্রলীগ নেতা নাজমুল ইসলাম।

আরও পড়ুন
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত