ঢাকা, ২০ মার্চ, ২০১৯
SylhetNews24.com
শিরোনাম:
ফলোআপ: অভাবের যাতনা ও ক্ষোভে বীর মুক্তিযোদ্ধা জলফে আলীর আত্বহত্যা! রাঙ্গামাটিতে ভোট শেষে ফেরার পথে গুলি:নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৮ জন জিয়া ভোটের রাজনীতি ধ্বংস করেছেন: প্রধানমন্ত্রী নৌকা আর বিদ্রোহী মিলে সিলেট জেলার ১২ উপজেলাই আ`লীগের নিউজিল্যান্ডেই দাফন সিলেটের হোসনে আরা ও ড. সামাদের মসজিদে হামলাকারীকে আটকানো পাকিস্তানি ‘নায়কের’ মৃত্যু সুনামগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে মুক্তিযোদ্ধার রহস্যজনক মৃত্যু খাদ্যমন্ত্রীর জামাইয়ের রহস্যজনক মৃত্যু, পরিবারের দাবি ‘হত্যা’ ফের ডাকসু পুনর্নির্বাচনের দাবি জানালেন ভিপি নুর বিশ্বব্যাপী প্রশংসায় ভাসছেন সেই কিশোর, আরও ডিম কেনার তহবিল গঠন

অতিরিক্ত চাপ শিক্ষার প্রতি শিশুদের ভীতি সৃষ্টি হয়:প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৩ মার্চ ২০১৯  

সন্তানের শিক্ষা নিয়ে অভিভাবকদের অসুস্থ প্রতিযোগিতা বন্ধের আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, শিশুদের ওপর অতিরিক্ত চাপ দিলে শিক্ষার প্রতি তাদের মধ্যে ভীতি সৃষ্টি হয়।

তারা যেন শিক্ষাটাকে আপন করে নিতে পারে, নিজেদের মতো করে পড়তে পারে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। বিশেষ করে অভিভাবকদের এ ব্যাপারে সচেতন থাকতে হবে।

বুধবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহ-২০১৯ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এ সব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আজকাল দেখি শিশুদের মধ্যে নয়, বাবা-মায়েদের মধ্যে প্রতিযোগিতা বেশি। এই অসুস্থ প্রতিযোগিতা থেকে দূরে থাকুন। সারাক্ষণ পড় পড় করলে ছেলে-মেয়েদেরও মন খারাপ হয়। তার যেন আনন্দের সঙ্গে পড়ালেখা করতে পারে সে ব্যবস্থা করতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা প্রি-প্রাইমারি ও প্রাইমারি শিক্ষাকে গুরুত্ব দিচ্ছি। অনেক দেশে সাত বছরের আগে শিশুরা স্কুলে যায় না। কিন্তু আমাদের দেশের শিশুরা অনেক আগে থেকেই স্কুলে যায়। শিশুদের বয়স হওয়ার পর তাদের স্কুলে নেওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে।

অনুষ্ঠানে শিশুদের উদ্দেশ্যে শেখ হাসিনা বলেন, তোমরা আমাদের ভবিষ্যৎ। নিজেদেরকে গড়ে তুলবে, লেখাপড়ায় মনোযোগ দেবে। পাশাপাশি খেলাধুলা, সাংস্কৃতিক চর্চা..যার যে গুণ আছে, সেটা যাতে বিকশিত হয়। শিশুদের মধ্যে থাকা সুপ্ত প্রতিভা যেন বিকশিত হয় সেজন্য আমাদের সবার কাজ করতে হবে। আজকের শিশুরাই ভবিষ্যতের কর্ণধার। হয়তো এর মধ্যে থেকেই কেউ আমার মতই বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীও হবে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন। গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন মন্ত্রণালয়ের সচিব আকরাম আল হাসান। এ ছাড়া অনুষ্ঠানে জাতীয় শিক্ষা পদক বিতরণ করেন প্রধানমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে প্রাথমিক ও গণশিক্ষার উন্নয়ন ও সাফল্যের ওপর একটি ভিডিও চিত্র প্রদর্শন করা হয়। ১৯ মার্চ জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহ উদযাপন করা হবে। এবারের প্রতিপাদ্য বিষয়- 'প্রাথমিক শিক্ষার দীপ্তি, উন্নত জীবনের ভিত্তি'।

আরও পড়ুন
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত