ঢাকা, ২৪ এপ্রিল, ২০১৯
SylhetNews24.com
শিরোনাম:
ব্রেকিং নিউজ---শ্রীলংকায় ৮টি পৃথক বোমা হামলায় নিহত বেড়ে ২০৭,কারফিউ জারি ‘সরকার বেকায়দায় নেই যে খালেদাকে প্যারোলে মুক্তি দিতে হবে’ আওয়ামী লীগ সরকারের জনপ্রিয়তা বেড়েছে: প্রধানমন্ত্রী সুনামগঞ্জে যুবক খুনের নেপথ্যে নৌ-পথে চাঁদাবাজি, গ্রেপ্তার ৮ নুসরাত হত্যা: আ’লীগ নেতা রুহুল আমিন আটক সিলেটের ওসমানীনগরে বিধবাকে ধর্ষণের অভিযোগে মামাশ্বশুর গ্রেফতার

 সিলেটের ১২ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আজ ভোট,ব্যাপক নিরাপত্তা 

স্টাফ রিপোর্টার

প্রকাশিত: ১৮ মার্চ ২০১৯  

সিলেটের ১২ উপজেলার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আজ ভোটগ্রহণ। চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান এই তিনটি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ১৭৬ প্রার্থী। রোববার বিভিন্ন কেন্দ্রে ভোটগ্রহণের সরঞ্জামাদি পৌঁছে দিয়েছে কমিশন। 

আজ সোমবার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। কে কাকে ভোট দিয়ে জয়ী করবেন এই হিসেব ইতোমধ্যে ভোটারা করে ফেললেও ভোটের পরিবেশের উপড় নির্ভর করবে জয় পরাজয়, এমনটাই বলছেন সিলেটের বিভিন্ন উপজেলার ভোটাররা। 

সিলেটের ১২ উপজেলায় মোট ভোটকেন্দ্র ৮১৬টি। সিলেট জেলার মোট ভোটার ১৭ লাখ ৯৩ হাজার ৭১০ জন। ১২ উপজেলার মধ্যে সদর ও দক্ষিণ সুরমা সিলেট মহানগর পুলিশের আওতাভুক্ত।
বাকি ১০ উপজেলা সিলেট জেলা পুলিশের আওতায়। পুলিশ জানায়, নির্বাচনে এসএমপির দুই উপজেলায় থাকবে ২১টি স্ট্রাইকিং টিম, ৪৪টি মোবাইল টিম, দেড় হাজারেরও বেশি পুলিশ সদস্য, ২ হাজার ২৮ জন আনসার সদস্য, বিজিবি ও র‌্যাবের সদস্যরাও নির্বাচনি মাঠে থাকবেন।

সিলেট জেলা পুলিশের আওতায় ১২ উপজেলায় মোতায়েন থাকবে ২ হাজার ৬০০ পুলিশ সদস্য। থাকবেন বিজিবির ৪২৭ জন সদস্য, ১৩০ জন র‌্যাব সদস্য ও আনসার সদস্য ৯ হাজার ৭৮২ জন। এছাড়া থাকবে ১৫টি স্ট্রাইকিং টিম ও ১০০টি মোবাইল টিম।

সিলেটের যে উপজেলাগুলোতে ভোট হচ্ছে- সিলেট সদর, বিশ্বনাথ, ফেঞ্চুগঞ্জ, বালাগঞ্জ, কোম্পানীগঞ্জ, কানাইঘাট, গোয়াইনঘাট, জৈন্তাপুর, দক্ষিণ সুরমা, জকিগঞ্জ, গোলাপগঞ্জ, বিয়ানীবাজার। ১২ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৫৯ জন, ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) পদে ৭৬ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪১ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

১৭ লাখ ৯৩ হাজার ৭১০ ভোটার নির্বাচন করবেন তাদের প্রতিনিধি। বিএনপি বিহীন এই নির্বাচনেও শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বিতায় পড়তে হচ্ছে আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের। এবার বেশিরভাগ উপজেলায়ই লড়াই হবে আওয়ামী ও আওয়ামী বিদ্রোহী প্রার্থীদের মধ্যে। তবে এই লড়াইয়ে কিছু এলাকায় বিএনপির বহিস্কৃত প্রার্থীরাও এগিয়ে রয়েছেন। 

মূলত এলাকায় প্রভাব বিস্তার ও দলীয় কোন্দলের কারণে ক্ষামতাসীন দলের নেতারা দ্বিধা বিভক্তিতে পড়েছেন। এছাড়া কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে বিদ্রোহী প্রার্থীদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা না নেওয়ার কারণে বিদ্রোহী বিপাকে পড়েছেন নৌকার প্রার্থীরা। আওয়ামী লীগের নিজেদের মধ্যে ভোট কাড়াকাড়ির মধ্যে কয়েকটি উপজেলায় চমক দেখাতে পারেন বিএনপির প্রার্থীরা।
 
সিলেটের ১২ উপজেলার ৭টিতেই ক্ষমতাসীন দলের একাধিক নেতা প্রার্থী হয়েছেন। এগুলোতে আওয়ামী লিগের বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছেন ১৬ জন। ৫টিতে রয়েছেন নৌকার একক প্রার্থী। এছাড়া জাতীয় পার্টির ৪ জন, বিএনপি নেতা ৬ জন এবং ইসলামী ঐক্যজোট ও স্বতন্ত্রসহ ১৯ জন নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
 

আরও পড়ুন
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত