17 Oct 2017
Loading
 

প্রচ্ছদ

জাতীয়

বাণিজ্য

খেলাধুলা

তথ্যপ্রযুক্তি

শিক্ষা

বিনোদন

সাহিত্য-সংস্কৃতি

ঐতিহ্য

পর্যটন

প্রবাসের সংবাদ এক্সক্লুসিভ সংগঠন সংবাদ মুক্তিযুদ্ধ আর্কইভস
শিরোনাম:
Bread Crumbs

2017-08-10 18:42:30

ঠিকাদার নয়-কৃষক ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সম্পৃক্ত করে বাঁধ নির্মাণের দাবি

সিলেটনিউজ২৪.কম

‘দূরের কোনো ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠানকে দিয়ে বাঁধ নির্মাণ নয়, হাওড়পাড়ের কৃষক ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সম্পৃক্ত করে বাঁধ নির্মাণ করতে হবে।

পাশাপাশি স্থানীয় জনসাধারণের অবগতির জন্য প্রত্যেক বাঁধে পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃক বরাদ্দের পরিমাণ,কাজের পরিমাণসহ যাবতীয় তথ্য দিতে হবে।

ঠিকাদার নয়, হাওরপাড়ের কৃষকদের সম্পৃক্ত করে বাঁধ নির্মাণ করতে হবে। নদী খনন ও জলমহাল খনন করে ডোবরার পানি নিষ্কাশন ও নদীতে পানি চলাচলের ব্যবস্থা করতে হবে। মাটি কাটার শ্রমিকদের দিয়ে বাঁধ নির্মাণ করতে হবে।’

বৃহস্পতিবার বিকেলে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার এফআইভিডিবি’র সম্মেলন কক্ষে উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত মতবিনিময় সভায় এ দাবি জানান জনপ্রতিনিধি ও সুধীজন।

সভায় প্রধান অতিথির অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মো. সাবিরুল ইসলাম। তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, ‘সকল জনপ্রতিনিধি ও গ্রামের কৃষকসহ প্রশাসনের কর্মকর্তাগণ যদি পেশাদারী মনোভাব নিয়ে কাজ করতো তাহলে অকাল বন্যায় তাদের ফসল তলিয়ে সুনামগঞ্জবাসীকে দুর্যোগে পড়তে হতো না। আগামী দিনে যাতে সুনামগঞ্জবাসী দুর্যোগে পড়তে না হয়, সেই লক্ষ্যে সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে।

আগামী দিনে বাঁধ নির্মাণের টাকা উপজেলা পর্যায়ে সরাসরি ব্যাংক একাউন্টে চলে আসবে। সরকারের কাছে ইতিমধ্যে প্রস্তাবনা পাঠিয়ে দিয়েছি। যাতে সকলের অংশগ্রহণে পিআইসি’র মাধ্যমে স্থানীয় চেয়ারম্যান, ইউপি সদস্যদের দিয়ে আগামী দিনে সুনামগঞ্জ জেলার সকল হাওরে পানি উন্নয়ন বোর্ডের কাজ সময়মতো স¤পন্ন করা যায়।’

তিনি আরো বলেন, ‘আপনারা যারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান-মেম্বার আছেন আগামী কয়েকদিনের মধ্যে আপনাদের কোন কোন জায়গায় জরুরিভিত্তিতে কাজ করতে হবে ও হাওরের কোন জায়গা অতিগুরুত্বপূর্ণ নদী-খননসহ বাঁধ নির্মাণ করা প্রয়োজন, সমস্যা এবং সম্ভাবনা সেই সকল কাজের বিষয়ে উপজেলা কমিটির মাধ্যমে পাঠাতে হবে।

তিনি বলেন, শুধু বাঁধ নির্মাণ করলেই চলবে না, পানি নিষ্কাশনের জন্য নদী ও বিলগুলো খনন করতে হবে। আপনাদের ভরাট হয়ে যাওয়া নদী-খাল ও বিলের সঠিক তালিকা আমাদের দিতে হবে।’
জেলা প্রশাসক মো. সাবিরুল ইসলাম বলেন, ‘জলমহাল খনন করার কথা সরকারি নীতিমালায় থাকলেও সঠিক মনিটরিংয়ের অভাবে ইজারাদাররা জলমহাল খনন করেন না। ওই সকল জলমহাল ও নদীগুলো চিহ্নিত করে খনন করা হবে।’

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আলমগীর কবিরের সভাপতিত্বে এবং আব্দুল মজিদ কলেজের প্রভাষক নুর হোসেনের পরিচালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম, হাওর বাঁচাও সুনামগঞ্জ বাঁচাও আন্দোলনের আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাড. বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু, যুগ্ম আহ্বায়ক বিজন সেন রায়, সদস্য সচিব বিন্দু তালুকদার, সুনামগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আবু বকর সিদ্দিক ভূঁইয়া, সুনামগঞ্জ জেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী মাহবুবুর রহমান,

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী আব্দুল হেকিম, সিনিয়র সহ-সভাপতি হাজী তহুর আলী, সাধারণ স¤পাদক আতাউর রহমান, জেলা পরিষদের সদস্য জহিরুল ইসলাম, জয়কলস ইউপি চেয়ারম্যান মাসুদ মিয়া, পাথারিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আমিনুর রশিদ, শিমুলবাক ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান জিতু, দরগাপাশা ইউপি চেয়ারম্যান মনির উদ্দিন, পশ্চিম বীরগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম, পশ্চিম পাগলা ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল হক, পূর্বপাগলা ইউপি চেয়ারম্যান আক্তার হোসেন, পূর্ব বীরগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান নুর কালাম, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি দিলীপ তালুকদার, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আতাউর রহমান, আব্দুল মজিদ কলেজের অধ্যক্ষ রবিউল ইসলাম।
এছাড়াও সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাসুদ আহমেদ, পশ্চিম পাগলা ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান জগলুল হায়দার, সাংবাদিক কাজী জমিরুল ইসলাম মমতাজ, সাবেক ইউপি সদস্য সাহেব আলী, রাসেল আহমদ, মহসিন আলম, সাংবাদিক নুরুল হক, মহিম উদ্দিন প্রমুখ।

Advertisement

জাতীয়-এর সর্বশেষ খবর

প্রচ্ছদ জাতীয় বাণিজ্য খেলাধুলা তথ্যপ্রযুক্তি শিক্ষা বিনোদন সাহিত্য-সংস্কৃতি ঐতিহ্য পর্যটন প্রবাসের সংবাদ এক্সক্লুসিভ সংগঠন সংবাদ মুক্তিযুদ্ধ আর্কইভস
Editor: Khaled Ahmed, SylhetNews24.com SNC Limited. Shah Forid Road. 30/3, Jalalabad R/A. Sylhet-3100. Bangladesh. Cell: +88 01711156789, +88 01611156789,
e-mail: [email protected], [email protected] Executive Editor: Mohammad Serajul Islam. cell:+88 01712 325665
All right ® reserved by SylhetNews24.com    Developed by eMythMakers.com & Incitaa e-Zone Ltd.