21 Nov 2018
Loading
 

প্রচ্ছদ

জাতীয়

বাণিজ্য

খেলাধুলা

তথ্যপ্রযুক্তি

শিক্ষা

বিনোদন

সাহিত্য-সংস্কৃতি

ঐতিহ্য

পর্যটন

প্রবাসের সংবাদ এক্সক্লুসিভ সংগঠন সংবাদ মুক্তিযুদ্ধ আর্কইভস
শিরোনাম:
Bread Crumbs

2017-07-28 16:51:50

দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চল সীমান্তে সিলেটের তামাবিলে প্রথম স্থল বন্দর চালু হচ্ছে আগস্টে

সিলেটনিউজ২৪.কম

দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চল সীমান্তে তামাবিলে সিলেটের প্রথম স্থল বন্দরের কাজ প্রায় শেষের দিকে।

স্থলবন্দরটির অবকাঠামো উন্নয়ন কাজ শেষ পর্যায়ে জানিয়ে সংশ্লিষ্টরা বলছেন, আগস্ট মাসেই এটির কার্যক্রম উদ্বোধনের সম্ভাবনা রয়েছে।

জানা যায়, ২০০১ সিলেটের তামাবিল শুল্ক স্টেশনকে পূর্ণাঙ্গ স্থলবন্দর হিসেবে ঘোষণা করেছিলো নৌ ও বন্দর কর্তৃপক্ষ। তবে প্রায় ১৪ বছর পর ২০১৫ সাল থেকে স্থল বন্দরের জমি অধিগ্রহণ ও অবকাঠামো নির্মান কাজ শুরু হয়।

কথা ছিলো ২০১৬ সালের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ স্থলবন্দরের কার্যক্রম শুরু হবে। তবে নির্মান কাজের ধীরগতির কারণে গত বছরে চালু করা সম্ভব হয়নি। তবে আগামী আগস্টের মধ্যে কাজ শেষ করে কার্যক্রম উদ্বোধনের আশা ব্যক্ত করেছেন সংশ্লিষ্টরা।

তামাবিল শুল্ক স্টেশনের শুল্ক কর্মকর্তা আবু জাফর মো. রায়হান বলেন, অনেকদিন থেকেই শুনতে পাচ্ছি এই স্থল বন্দরের কার্যক্রম উদ্বোধন হবে। তবে কাজ শেষ না হওয়ায় এটি বারবার পিছিয়ে যাচ্ছে। এখন শুনছি আগামী আগস্টে উদ্বোধন হবে।

সিলেটে চেম্বারের সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদ জানান, তামাবিল স্থল বন্দরের কার্যক্রম শুরু হলে ভারতের সাত রাজ্যসহ ভূটানে আমদানি রফতানি আরো প্রসারিত হবে। বর্তমানে অবকাঠামোসহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা না থাকায় সম্ভাবনা থাকা সত্বেও ব্যবসা বাড়ছে না।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, সিলেটের তামাবিল শুল্ক স্টেশনকে ২০০১ সালে স্থলবন্দর হিসেবে ঘোষণা করা হয়। এরপর ২০১৫ সালের অক্টোবরে নৌ পরিবহন মন্ত্রী শাহাজান খান সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার তামাবিল শুল্ক স্টেশনকে স্থল বন্দরে উন্নীতের কাজের উদ্বোধন করেন। সে সময় বলা হয়েছিলো ২০১৬ সালের মধ্যে এই বন্দরের কার্যক্রম শুরু হবে।

বন্দরে উন্নীতের কার্যক্রমের মধ্যে ২৩.৭২ একর ভূমি অধিগ্রহণ, এক লাখ নয় হাজার ৩৩০ ঘনমিটার ভূমি উন্নয়ন, দুই হাজার ৫০০ মিটার বাউন্ডারি ওয়াল তৈরি, আট হাজার ১৮০ বর্গমিটার অভ্যন্তরীন সড়ক নির্মাণ, ২৭ হাজার বর্গমিটার ওপেন স্ট্যাক ইয়ার্ড নির্মাণ, ৭৪৪ বর্গমিটার ওয়্যারহাউস নির্মাণ, এক হাজার ৩৪৯ বর্গমিটার অফিস, ডরমেটরি ও ব্যারাক ভবন নির্মাণ, দুই হাজার মিটার ড্রেন নির্মাণ, দুটি ওয়েটব্রিজ ও দুটি ১০০ মেট্রিকটন ধারণক্ষমতা সম্পন্ন ওয়েহিং স্কেল সংগ্রহ করা, পাঁচটি ওয়াচ টাওয়ার নির্মাণ করা হচ্ছে। এছাড়া, কম্পিউটার ফটোকপি, জীপসহ আনুষঙ্গিক জিনিসপত্র ক্রয় করা হবে বলেও জানান সংশ্লিস্টরা। এসব উন্নয়ন কাজে ব্যয় হচ্ছে ৬৯ কোটি টাকা।

এই স্থলবন্দর দিয়ে  প্রধানত কয়লা, চুনাপাথর, পাথর ও ফল আমদানি করা হয় এবং প্রসাধন সামগ্রী, প্রক্রিয়াজাত খাদ্য ও ইট রফতানি করা হয়।

তামাবিলে বন্দর কর্তৃপক্ষের কোন স্থাপনা না থাকায় আমদানিকারকরা ব্যক্তিগত উদ্যোগে ভাড়া করা জায়গায় আমদানিকৃত মালামাল সংরক্ষণ ও লোডিং-আনলোডিংয়ের কাজ করে থাকেন বলে জানান কয়লা আমদানীকারক সমিটির সাবেক সভাপতি এমদাদ হোসেন।

দেশের ব্যস্ততম এই শুল্ক স্টেশনে ওয়েটব্রিজ না থাকায় আমদানি-রফতাকিৃত পণ্যের সঠিক ওজন পরিমাপ করতে না পারায় সরকার প্রচুর পরিমাণ শুল্ক হতেও বঞ্চিত হচ্ছে বলেও মন্তব্য শুল্ক কর্মকর্তাদের।

তামাবিল স্থলবন্দরের সহকারী পরিচালক পার্থ ঘোষ বলেন, উন্নয়ন প্রকল্পের প্রায় ৯৫ ভাগ কাজ সম্পন্ন হয়েছে।  অচিরেই সংশ্লিষ্ট মন্ত্রী এই স্থলবন্দরের কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন। এ স্থলবন্দরের কার্যক্রম শুরু হলে এ অঞ্চলের ব্যবসা বাণিজ্যেও ব্যাপক পরিবর্তন আসবে।

সিলেট চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি খন্দকার শিপার আহমদ বলেন, ভারতের সাত রাজ্যসহ ভুটানের সাথে আমাদের ব্যবসা বাণিজ্যের প্রচুর সম্ভাবনা রয়েছে। বাংলাদেশের পণ্যের চাহিদাও রয়েছে সেখানে। কিন্তু সুযোগ সুবিধা না থাকায় ব্যবসায়ীরা এদিক দিয়ে পণ্য রফতানিতে আগ্রহী নন। স্থল বন্দর চালু হলে সম্ভাবনার নতুন দ্বার খুলবে।

স্থানীয় আসনের সংসদ সদস্য (সিলেট-৪) ইমরান আহমদ বলেন, সরকারের আন্তরিক উদ্যোগ ও প্রচেষ্টায় তামাবিলকে একটি আধুনিক স্থলবন্দর হিসাবে গড়ে তোলা হয়েছে। শুধু তামাবিল স্থলবন্দরই নয়, তামাবিলের পাশে একটি অর্থনৈতিক অঞ্চলও গড়ে তোলতে মহাপরিকল্পনা এগিয়ে চলছে বলে তিনি জানান।

Advertisement

ব্যবসা-বাণিজ্য-এর সর্বশেষ খবর

প্রচ্ছদ জাতীয় বাণিজ্য খেলাধুলা তথ্যপ্রযুক্তি শিক্ষা বিনোদন সাহিত্য-সংস্কৃতি ঐতিহ্য পর্যটন প্রবাসের সংবাদ এক্সক্লুসিভ সংগঠন সংবাদ মুক্তিযুদ্ধ আর্কইভস
Editor: Khaled Ahmed, SylhetNews24.com SNC Limited. Shah Forid Road. 30/3, Jalalabad R/A. Sylhet-3100. Bangladesh. Cell: +88 01711156789, +88 01611156789,
e-mail: [email protected], [email protected] Executive Editor: Mohammad Serajul Islam. cell:+88 01712 325665
All right ® reserved by SylhetNews24.com    Developed by eMythMakers.com & Incitaa e-Zone Ltd.