21 Sep 2018
Loading
 

প্রচ্ছদ

জাতীয়

বাণিজ্য

খেলাধুলা

তথ্যপ্রযুক্তি

শিক্ষা

বিনোদন

সাহিত্য-সংস্কৃতি

ঐতিহ্য

পর্যটন

প্রবাসের সংবাদ এক্সক্লুসিভ সংগঠন সংবাদ মুক্তিযুদ্ধ আর্কইভস
শিরোনাম:
Bread Crumbs

2018-07-01 20:04:38

সম্পদ ও ঋণ বেড়েছে:আরিফের পেশা ‘সিএনজি ফিলিং স্টেশন ও ডেইরি ফার্ম ব্যবসায়ী’

সিলেটনিউজ২৪.কম

সদ্য বিদায়ী মেয়র বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরীর সম্পদ যেমন বেড়েছে, তেমনি বেড়েছে ব্যাংক ঋণ। আরিফুল হক দলের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য । ২০১৩ সালে ৩৫ হাজার ভোটের ব্যবধানে কামরানকে পরাজিত করে মেয়র হন তিনি।

২০০৪ থেকে ২০১৫ সালের মধ্যে আরিফ ৭টি ফৌজদারি মামলার আসামি হন। আদালতের আদেশে সব কটিতেই বর্তমানে জামিনে আছেন বা আদালতের আদেশের কারণে মামলা স্থগিত আছে বলে হলফনামায় উল্লেখ রয়েছে।

গত ২৮ জুন মনোনয়নপত্রের সঙ্গে দাখিল করা হলফনামা থেকে জানা যায়, আরিফুল হক চৌধুরীর অস্থাবর সম্পদের পরিমাণ প্রায় ১ কোটি ৯৪ লাখ ৯৮ হাজার ৮৩২ টাকা। এর মধ্যে নগদ ১৯ লাখ ১৮ হাজার ৯৬৭ টাকা, ১১ লাখ ২৫ হাজার ৭৭ টাকা সমমূল্যের বৈদেশিক মুদ্রা, ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে জমা ৭৯ লাখ ৩৬ হাজার ৯১৩ দশমিক ৩৪ টাকা, ৬৫ লাখ ৩৬ হাজার ৬০০ টাকার শেয়ার, ১৩ লাখ ১৫ হাজার ২৭৫ টাকার প্রাইজবন্ড, ৩ লাখ ৮৬ হাজার টাকা সমমূল্যের গাড়ি, দেড় লাখ টাকার ইলেকট্রনিকসামগ্রী, ১ লাখ টাকার আসবাব ও ৩০ হাজার টাকার স্বর্ণালংকার রয়েছে।

হলফনামায় আরিফুল হক চৌধুরী ৮ দশমিক ৫৩ একর কৃষিজমি, ৫ দশমিক ৫৩ একর অকৃষিজমি, সেমিপাকা ৩টি ও ২টি দালানের কথা উল্লেখ করলেও তাঁর মূল্য উল্লেখ করা হয়নি। তবে তিনি পূবালী ব্যাংকে ৭৭ লাখ ৮২ হাজার ২৫০ টাকা ও সিটি ব্যাংকে ১৫ লাখ ৯৮ হাজার ৫৩ টাকা দেনা থাকার কথা উল্লেখ করেছেন।

২০১৩ সালের হলফনামায় তাঁর স্থাবর-অস্থাবর সম্পদের পরিমাণ উল্লেখ করেছিলেন প্রায় ৩ কোটি টাকা।

হলফনামায় আরিফ পেশায় ‘সিএনজি অ্যান্ড ফিলিং স্টেশন ও ডেইরি ফার্ম ব্যবসায়ী’ উল্লেখ করেছেন। তাঁর বার্ষিক আয় ৭ লাখ ৫৮ হাজার ১২০ টাকা।

আরিফুল হকের স্ত্রী শ্যামা হক চৌধুরীর আয় ৬ লাখ ৬৮ হাজার ৩০০ টাকা। এ ছাড়া তাঁর মেয়ের মালিকানাধীন বাসা থেকে ভাড়া ১ লাখ ৮ হাজার ও নির্ভরশীলদের কৃষি খাত থেকে ৩০ হাজার টাকা পান। অস্থাবর সম্পদের পরিমাণ ৬ লাখ ৬৮ হাজার ৩০০ টাকা। এর মধ্যে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে জমা ১৩ লাখ ১৫ হাজার টাকা, স্থায়ী আমানতে বিনিয়োগ ২ লাখ ১১ লাখ ৩০ হাজার টাকার একটি পিকআপ গাড়ি, ১ লাখ ৫৩ হাজার ৪৫০ টাকার আসবাব, ১ লাখ ১২ হাজার টাকার স্বর্ণালংকার, ৪৫ হাজার টাকার ইলেকট্রনিকসামগ্রী রয়েছে। স্থাবর সম্পদের মধ্যে দশমিক শূন্য ৮ একর অকৃষিজমি ও একটি সেমিপাকা দালানের কথা উল্লেখ করলেও তাঁর মূল্য উল্লেখ করা হয়নি। আরিফুল হকের মায়ের নামে একটি ফ্ল্যাট ও দশমিক শূন্য ৩ একর অকৃষিজমি আছে।

সম্পদ ও দেনা দুটিই বেড়ে যাওয়া প্রসঙ্গে আরিফুল হক বলেন, ‘ব্যাংক ঋণ নিয়ে ব্যবসা প্রসার হওয়ায় সম্পদ বেড়েছে উল্লেখ করা হলেও আসলে কমেছে। আমি মেয়র থাকাকালে ২৭ মাস জেলে ছিলাম। ওই সময় আমাদের আয়ের একমাত্র উৎস গবাদিপশুর খামার পরিচালনায় ব্যাংকঋণ নেওয়া হয়েছিল। এই হিসাবে সম্পদ কিছুটা বেড়েছে। সেই সঙ্গে দেনাও বেড়েছে। ব্যাংকঋণ বিবেচনায় আমার সম্পদ আসলে বাড়েনি, উল্টো কমেছে।’

হলফনামার শিক্ষাগত যোগ্যতার তথ্যে আরিফুল হক ‘স্বশিক্ষিত’ উল্লেখ রয়েছে। ২০১৩
সালের হলফনামায়ও শিক্ষাগত যোগ্যতার এমন তথ্য ছিল।

Advertisement

জাতীয়-এর সর্বশেষ খবর

প্রচ্ছদ জাতীয় বাণিজ্য খেলাধুলা তথ্যপ্রযুক্তি শিক্ষা বিনোদন সাহিত্য-সংস্কৃতি ঐতিহ্য পর্যটন প্রবাসের সংবাদ এক্সক্লুসিভ সংগঠন সংবাদ মুক্তিযুদ্ধ আর্কইভস
Editor: Khaled Ahmed, SylhetNews24.com SNC Limited. Shah Forid Road. 30/3, Jalalabad R/A. Sylhet-3100. Bangladesh. Cell: +88 01711156789, +88 01611156789,
e-mail: [email protected], [email protected] Executive Editor: Mohammad Serajul Islam. cell:+88 01712 325665
All right ® reserved by SylhetNews24.com    Developed by eMythMakers.com & Incitaa e-Zone Ltd.